Kerala: NCERT-র পাঠ্যপুস্তক থেকে বাদ যাওয়া বাবরি মসজিদ অংশ পড়ানো হবে কেরালায়, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

People's Reporter: সম্প্রতি NCERT দ্বাদশ শ্রেণীর সংশোধিত রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পাঠ্যপুস্তকে বাবরি মসজিদের নাম সরিয়ে দিয়েছে। এটিকে "তিন গম্বুজ কাঠামো" হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে।
কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিভানকুট্টি
কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিভানকুট্টিছবি - সংগৃহীত

NCERT-র পাঠ্যপুস্তক থেকে বাবরি মসজিদ সংক্রান্ত বাদ দেওয়া অংশ পড়ানো হবে কেরালার স্কুলগুলিতে। মঙ্গলবার এমনটাই জানিয়েছেন কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিভানকুট্টি।

সম্প্রতি NCERT দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞানের সংশোধিত পাঠ্যপুস্তকে বাবরি মসজিদের নাম সরিয়ে দিয়েছে। এটিকে "তিন গম্বুজ কাঠামো" হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়াও অযোধ্যা বিভাগ সম্পর্কিত আলোচনা চার থেকে কমিয়ে দুই পৃষ্ঠায় আনা হয়েছে এবং পূর্ববর্তী সংস্করণ থেকে এই বিষয়ের বিশদ তথ্য মুছে দেওয়া হয়েছে।

সর্বভারতীয় এক সংবাদসংস্থায় কেরালার শিক্ষামন্ত্রী জানান, পাঠ্যপুস্তককে কখনও কোনও আন্দোলনের প্রোপাগান্ডা হিসেবে ব্যবহার করা উচিত নয়। প্রকৃত ইতিহাস এবং বিজ্ঞান শিক্ষার্থীদের শেখানো উচিত। অতীতে যখন পাঠ্যপুস্তক থেকে মুঘল যুগ বাদ দেওয়া হয়েছিল তখন কেরালা সরকার ওই ইতিহাস সম্পর্কিত নতুন পাঠ্যপুস্তক চালু করেছিল পড়ুয়াদের জন্য।

উল্লেখ্য, NCERT-র পুরনো পাঠ্যপুস্তকে বাবরি মসজিদকে ১৬ শতকের একটি মসজিদ হিসাবে বলা হয়েছিল, যা মুঘল সম্রাট বাবরের সেনাপতি মীর বাকি নির্মাণ করেছিলেন। পরিবর্তনের পর, এই অধ্যায়ে বাবরি মসজিদ সম্পর্কে বলা হয়েছে, একটি তিন গম্বুজ কাঠামো (যেটি) ১৫২৮ সালে শ্রীরামের জন্মস্থানের জায়গায় নির্মিত হয়েছিল, তবে কাঠামোটির ভিতরের পাশাপাশি বাইরের অংশেও হিন্দু চিহ্ন এবং ধ্বংসাবশেষের অস্তিত্ব ছিল।

এছাড়া নতুন পাঠ্যপুস্তকে গুজরাট দাঙ্গার মত বিষয়গুলিরও পরিবর্তন করা হয়েছে। এই পরিবর্তন সম্পর্কে NCERT-এর ডিরেক্টর দীনেশ প্রসাদ সাকলানি জানান, "কেন আমরা স্কুলের পাঠ্যপুস্তকে দাঙ্গা সম্পর্কে শেখাবো? আমরা ইতিবাচক নাগরিক তৈরি করতে চাই। হিংসাত্মক এবং হতাশাগ্রস্ত ব্যক্তি নয়"।

কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিভানকুট্টি
NCERT: নতুন পাঠ্যপুস্তকে বাবরি মসজিদ বদলে 'তিন গম্বুজ কাঠামো - কী জানালেন NCERT ডিরেক্টর সাকলানি?
কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিভানকুট্টি
Madhya Pradesh: পুলিশের দাবি ফ্রিজে গোরুর মাংস! মধ্যপ্রদেশে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ১১টি বাড়ি

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in