Assam: আমার গ্রেপ্তারের ঘটনা দেশদ্রোহী আইন (UAPA) অপব্যবহারের বড় প্রমাণ: অখিল গগৈ
অখিল গগৈছবি ট্যুইটার থেকে সংগৃহীত

Assam: আমার গ্রেপ্তারের ঘটনা দেশদ্রোহী আইন (UAPA) অপব্যবহারের বড় প্রমাণ: অখিল গগৈ

৫৬৭ দিন জেল খাটার পর সাংবাদিকদের সামনে দাঁড়িয়ে অখিল বলেন, কোনও কিছু প্রমাণ করতে না পেরে এনআইএ (NIA) বৃহস্পতিবারও নতুন করে মামলা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল।

১ দিন আগেই জেলমুক্তি হয়েছে অসমের কৃষক নেতা অখিল গগৈয়ের। জেল থেকে বেরিয়েই সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন তিনি। অখিল বলেছেন, সরকার ইউএপিএ (UAPA) আইনের যে অপব্যবহার করছে, তার প্রমাণ তাঁকে গ্রেপ্তার করার ঘটনা। ২ বছর পর এনআইএ আদালত তাকে নির্দোষ প্রমাণ করে। যা 'ঐতিহাসিক' বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ (NIA) কে বিজেপির 'রাজনৈতিক অস্ত্র' বলে উল্লেখ করে অখিল বলেন, দেশদ্রোহী আইন (UAPA) অপব্যবহার করে যাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাঁর এই মামলার রায় সেগুলোর জন্য উপযুক্ত জবাব। ৫৬৭ দিন জেল খাটার পর সাংবাদিকদের সামনে দাঁড়িয়ে অখিল বলেন, কোনও কিছু প্রমাণ করতে না পেরে এনআইএ (NIA) বৃহস্পতিবারও নতুন করে মামলা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু ততক্ষণে আদালত রায়দান করে দিয়েছিল।

এনআইএ (NIA) ২৯ জুন একটি চার্জশিট পেশ করেছে। তাতে হানি ট্রাপ, গোরু পাচার, মাওবাদী ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ চালানোর মতো মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছিল। রায়জোর দল প্রধান জানিয়েছিলেন, এআইএ (NIA) আগেই অখিলকে জামিন দেওয়ার কথা বলেছিল। কিন্তু তার পরিবর্তে RSS বা বিজেপিতে যোগদানের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল তাঁকে।

এমনকী, বিজেপির মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়। গগৈ আরও বলেন, এনআইএ প্রথমেই নিজেদের হেপাজতে নিয়েই RSS -এ যোগদানের কথা বলেছিল। যদি এমনটা করেন তাহলে ১০ দিনের মধ্যে তাঁকে মুক্তির প্রস্তাব দেওয়া , তা না হলে ১০ বছরের জেল খাটানোর হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় বলে তাঁর অভিযোগ। তাঁর আরও দাবি- মাওবাদী যোগ নিয়ে কোনও কথাই বলা হয়নি তাঁর সঙ্গে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in