Assam Mizoram: সীমান্ত সংঘর্ষের জের - হিমন্ত বিশ্ব শর্মার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের মিজোরাম পুলিশের
আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মাছবি হিমন্ত বিশ্ব শর্মার ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

Assam Mizoram: সীমান্ত সংঘর্ষের জের - হিমন্ত বিশ্ব শর্মার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের মিজোরাম পুলিশের

আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করলো মিজোরাম। গত সোমবার দু'রাজ‍্যের সীমানায় পুলিশের মধ্যে যে গুলির লড়াই হয়েছিল তার জেরে এই পদক্ষেপ মিজোরাম পুলিশের

আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করলো মিজোরাম পুলিশ। গত সোমবার দুই রাজ‍্যের সীমানায় দুই রাজ‍্যের পুলিশের মধ্যে যে গুলির লড়াই হয়েছিল সেই ঘটনার জেরে এই পদক্ষেপ নিয়েছে মিজোরাম পুলিশ। এই ঘটনায় একাধিক ব‍্যক্তির আহত হওয়ার পাশাপাশি আসামের ছয় পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়েছিল।

শুক্রবার মিজোরামের কোলাসিব জেলার ভাইরেংটে থানায় হত‍্যার চেষ্টা, ষড়যন্ত্র সহ ভারতীয় দন্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ছাড়াও অসমের একজন আইজি, একজন ডিআইজি, একজন পুলিশ সুপার, কাছাড় জেলার ডেপুটি কমিশনার এবং ২০০ জন অজ্ঞাতপরিচয় ব‍্যক্তির নাম রয়েছে এফাআইআরে।আগামী ১ আগস্ট ভাইরেংটে থানায় হাজিরা দিতে বলা হয়েছে এই আধিকারিকদের।

অভিযোগে বলা হয়েছে, ঘটনার দিন মিজোরাম পুলিশ কর্তৃক দেওয়া "বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার" দাবি খারিজ করে দিয়ে আসাম পুলিশ হিমন্ত বিশ্ব শর্মার নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করেছে। মিজোরামের মধ্যে থাকা একটি এলাকাকে জোর করে নিজেদের এলাকা বলে দাবি করে আসাম পুলিশ। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী সেখানে ক‍্যাম্প তৈরির উদ্যোগ নিয়েছিল আসাম পুলিশ। ক‍্যাম্প তৈরির সমস্ত সামগ্রী তাঁরা সাথে করেই নিয়ে এসেছিলেন যাতে পরিষ্কার তাঁরা বলপূর্বক মিজোরাম বিওপি দখল করতে এসেছিলেন। তাঁদের কনভয়ে একাধিক অ‍্যাম্বুলেন্সও ছিল।

কোলাসিবের এসপি অসম পুলিশের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে চাইলেও অসম পুলিশ তাতে গুরুত্ব দেয়নি বলে উল্লেখ রয়েছে এফআইআরে।

দুই রাজ‍্যের মধ্যে কয়েক দশক ধরেই সীমানা নিয়ে লড়াই চলছে। কিন্তু সোমবার সেই লড়াই চরমে পৌঁছায়। এই ক‍্যাম্প তৈরিকে কেন্দ্র করে দুই রাজ‍্যের সীমান্তবর্তী জেলায় সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে দুই রাজ‍্যই সীমান্তে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in