Assam-Mizoram Clash: অসমের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে মিজোরামকে সমর্থন মেঘালয়ের BJP মন্ত্রীর
সানবোর শুল্লাইছবি সৌজন্যে - EastMojo

Assam-Mizoram Clash: অসমের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে মিজোরামকে সমর্থন মেঘালয়ের BJP মন্ত্রীর

আসাম-মিজোরাম সংঘর্ষে মিজোরামকে সমর্থন করলেন মেঘালয়ের মন্ত্রী ও BJP নেতা সানবোর শুল্লাই। এমনকি মিজোরামের রাজ‍্যসভার সাংসদ কে ভালনাভিনার বিতর্কিত 'ওদের সকলকে মেরে ফেলব' মন্তব‍্যও সমর্থন করেছেন তিনি।

আসাম-মিজোরাম সীমান্ত সংঘর্ষে মিজোরামকে সমর্থন করলেন মেঘালয়ের শ্রমমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা সানবোর শুল্লাই। এমনকি মিজোরামের রাজ‍্যসভার সাংসদ কে ভালনাভিনার বিতর্কিত 'ওদের সকলকে মেরে ফেলব' মন্তব‍্যও সমর্থন করেছেন তিনি।

আসাম-মিজোরাম সংঘর্ষ এবং ভানলাভিনার মন্তব্য প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, "শত্রুর" বিরুদ্ধে আন্তঃরাষ্ট্রীয় সীমান্ত রক্ষা করতে এভাবেই পুলিশ বাহিনীর ব‍্যবহার করা উচিত। তিনি বলেন, "আমাদের মধ্যে অর্থাৎ জনগণ ও পুলিশের মধ্যে এই স্পিরিট থাকা উচিত। অসমের লোকেরা যদি সীমান্ত এলাকায় আমাদের লোকেদের হয়রানি করে, তাহলে চা খেয়ে-আলোচনা করে বসে থাকার সময় নয় এটা, এখন সময় এসেছে জবাব দেওয়ার। আমাদের ওই জায়গাতেই জবাব দিতে হবে।"

তিনি বলেন, "এটা একটা উদাহরণ যে আমাদের জনগণকে রক্ষা করার স্পিরিট আমাদের আছে, আমরা আমাদের বাহিনীকে ব‍্যবহার করতে পারি। যদি শত্রুরা আপনার বাড়ি আক্রমণ করে, আপনার স্ত্রী-বাচ্চাদের আক্রমণ করে। আপনাকে আত্মরক্ষার্থে তাদের আক্রমণ করতেই হবে। সীমান্তেও এই একই কাজ করা উচিত। যদি শত্রু আপনার বাড়িতে চুরি বা ডাকাতি করতে আসে, তাহলে আপনাকে তাদের হাত থেকে বাঁচতে হবে, তা সে বৈধ বা অবৈধ যেকোনো উপায়ে হোক না কেন। আপনাকে বাঁচতেই হবে।"

প্রসঙ্গত, এই সপ্তাহেই সংসদ ভবনের বাইরে সাংবাদিকদের সামনে মিজোরামের সাংসদ ভানলাভেনা বলেন, "২০০-র বেশি পুলিশ কর্মী আমাদের ভূখন্ডে প্রবেশ করে এবং আমাদের পুলিশকর্মীকে তাঁদের জায়গা থেকে বলপূর্বক সরিয়ে দেয়। আমাদের গুলি চালানোর আগে ওঁরা গুলি চালানোর আদেশ দিয়েছিল। ওঁরা ভাগ‍্যবান যে আমরা ওঁদের সকলকে হত‍্যা করিনি। যদি ওঁরা আবার আসে, তাহলে ওঁদের সকলকে মেরে ফেলব আমরা।"

সীমান্ত নিয়ে আসাম ও মিজোরামের মধ্যে কয়েক দশক ধরে লড়াই চলছে। সোমবার তা চূড়ান্ত সীমায় পৌঁছায়। এক জায়গায় ক‍্যাম্প তৈরিকে কেন্দ্র করে দুই রাজ‍্যের পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে আসামের ছয় পুলিশকর্মী প্রাণ হারান।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in