Assam Flood: ট্র্যাক থেকে ভেসে গেল ট্রেন, গৃহহীন প্রায় ৫০০০০ মানুষ, শোচনীয় অবস্থা অরুণাচলেরও

লামডিং–আগরতলা রেললাইন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায়, গত তিনদিন ধরে হাফলং স্টেশনে আটকে ছিল দুটি ট্রেন ও তার মধ্যে থাকা প্রায় ২০০০ এরও বেশি জন যাত্রী।
Assam Flood: ট্র্যাক থেকে ভেসে গেল ট্রেন, গৃহহীন প্রায় ৫০০০০ মানুষ, শোচনীয় অবস্থা অরুণাচলেরও
ছবি - সংগৃহীত

লোহার তৈরি সেতু ভেঙ্গে নিউ-হাফলং স্টেশনে ঢুকেছে বন্যার জল। দুটি আস্ত ট্রেন ভেসে গেছে ট্র্যাক থেকে। আসামের ডিমাহাসাওয়ে জেলার মানুষ বিগত পঞ্চাশ বছরে বন্যার এই ভয়ানক রূপ দেখেনি। লামডিং–আগরতলা রেললাইন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায়, গত তিনদিন ধরে হাফলং স্টেশনে আটকে ছিল দুটি ট্রেন ও তার মধ্যে থাকা প্রায় ২০০০ এরও বেশি জন যাত্রী।

১৬ই মে, সোমবার শিলচর-গুয়াহাটি রুটের এই দুটি ট্রেনকে ট্র্যাক থেকে ভাসিয়ে নিয়ে যায় বন্যার জলের স্রোত। বন্যার প্রকোপে নিউ-হাফলং স্টেশনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে। জল-কাদা-পাহাড়ি মাটিতে প্রায় ডুবে গিয়েছে স্টেশন। ডিমাহাসাওয়ে জেলার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে দিহাং নদী। এই নদীর ওপরের লোহার ব্রিজ ভেঙে নদীর জল উপছে ঢুকে পড়ে জনবসতি এলাকায়। ধস নেমে ওই এলাকার কয়েকশো বাড়িও ভেঙে যায়। এছাড়াও বড় বড় গাছ পরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সরকারি অফিস, বিদ্যালয়, সড়ক। আতঙ্কিত এলাকাবাসী নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে ঘর ছাড়া হয়েছেন।

সূত্রের খবর, পার্শ্ববর্তী জেলা কাছাড়েও একই রকম দুরাবস্থা। কাছাড়ের ২২২টি গ্রামের প্রায় ৫০হাজার মানুষ বন্যার কবলে পরেছেন। আসামের এই বন্যা পরিস্থিতিতে ১০জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তারমধ্যে কাছাড় জেলাতেই ৫জন মারা গিয়েছেন বন্যার মোকাবিলা করতে না পেরে। এই ৫ জনের মধ্যে ২জন শিশু মৃত্যু ঘটেছে। আসামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

কাছাড়ে এ পর্যন্ত মাত্র ৯টি ত্রাণ শিবির খোলার খবর পাওয়া গেছে, যা প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত নগণ্য। ডিমাহাসাও জেলার বন্যাক্রান্ত মানুষের খোঁজ নেবার জন্য সোমবার হাফলং-এর উদ্দেশ্যে রওনা দেন আসামের দুর্যোগ মোকাবিলা বিভাগীয় মন্ত্রী যোগেন মোহন। কিন্তু হাফলং-এর দুর্গম রাস্তায় না গিয়ে ৪২ কিলোমিটার দূরে মাইবং থেকেই ফিরে যান মন্ত্রী। কাটিগড়ার কংগ্রেসের বিধায়কের তরফেও কোন ত্রাণের ব্যবস্থা করা হয়নি গৃহহীনদের জন্য, এমনটাই অভিযোগ।

প্রশাসনের দাবী, যারা শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন তাদেরকে ত্রাণ-সামগ্রীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। বন্যার এই শোচনীয় পরিস্থিতিতে সরকারের নিরবতায় যোগেন মোহনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন গৃহহীনেরা। উত্তর-পূর্ব রেলওয়ের তরফে খবর, লামডিং–আগরতলা রুটের ৫৩টি জায়গা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, এরমধ্যে ১১টি জায়গা মেরামত হয়েছে। আসাম-আগরতলা জাতীয় সড়কেও ধস নেমেছিল, তা সারাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে।

আসামের প্রতিবেশী রাজ্য অরুনাচলে প্রদেশেরও একই রকম বেহাল অবস্থা। আসামে ১০জন ও অরুনাচলে ধস নেমে ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। মাঝরাতেও নামছে ধস। একই পরিবারের ৯জন ধসের কবলে পরে আহত হয়েছেন। ওই পরিবারের সকলে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

Assam Flood: ট্র্যাক থেকে ভেসে গেল ট্রেন, গৃহহীন প্রায় ৫০০০০ মানুষ, শোচনীয় অবস্থা অরুণাচলেরও
Tajmahal Controversy: কোনও ‘রহস্য’ই লুকিয়ে নেই, তাজমহলের বেসমেন্টের ছবি প্রকাশ করে জানাল ASI

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in