Delhi: সরকারি বিজ্ঞাপনের আড়ালে দলীয় প্রচার! AAP-র কাছে ১৬৪ কোটি টাকা চেয়ে নোটিস দিল্লি সরকারের

দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর বিনয়কুমার সাক্সেনার নির্দেশে এই নোটিস পাঠিয়েছে রাজধানীর ‘তথ্য ও প্রচার অধিদপ্তর’ (DIP)। নোটিশে আপ-কে আগামী ১০ দিনের মধ্যে ১৬৪ কোটি টাকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
Delhi: সরকারি বিজ্ঞাপনের আড়ালে দলীয় প্রচার! AAP-র কাছে ১৬৪ কোটি টাকা চেয়ে নোটিস দিল্লি সরকারের

সরকারি বিজ্ঞাপনের আড়ালে রাজনৈতিক প্রচার চালানোর অভিযোগে ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টি (আপ)-কে নোটিস পাঠাল দিল্লি সরকার। দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর বিনয়কুমার সাক্সেনার (Vinai Kumar Saxena) নির্দেশে এই নোটিস পাঠিয়েছে রাজধানীর ‘তথ্য ও প্রচার অধিদপ্তর’ (DIP)। নোটিশে আপ-কে আগামী ১০ দিনের মধ্যে ১৬৪ কোটি টাকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জনগণের ট্যাক্সের টাকায় দলীয় প্রচার করছে আপ, এই অভিযোগ তুলে ২০১৫ সালে সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করেন কংগ্রেস নেতা অজয় মাকেন (Ajay Maken)। তারপর, ২০১৬ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গঠিত হয় সরকারি বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত নিয়ন্ত্রণ কমিটি বা Committee on Content Regulation in Government Advertising (CCRGA)।

CCRGA বা সুপ্রিম কোর্টের গঠিত কমিটি দিল্লি সরকারকে এক নির্দেশিকায় জানায়, ‘এই ধরনের বিজ্ঞাপনগুলির জন্য যে খরচ হয়েছে, তা আম আদমি পার্টির কাছ থেকে নিয়ে সরকারি কোষাগারে জমা দিতে হবে।’ কিন্তু, কমিটির এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে রিভিউ পিটিশন দাখিল করে অরবিন্দ কেজরীওয়ালের (Arvind Kejriwal) আম আদমি পার্টি (আপ)। তবে, আপের সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

সম্প্রতি, AAP-র বিরুদ্ধে কমিটির নির্দেশিকা অমান্য করার অভিযোগ আনেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর বিনয়কুমার সাক্সেনা। বৃহস্পতিবার, তাঁর নির্দেশেই আপ প্রধান কেজরীওয়ালকে নোটিশ পাঠিয়েছে দিল্লি সরকারের ‘তথ্য ও প্রচার অধিদপ্তর’ (DIP)।

জানা যাচ্ছে, দিল্লির তথ্য ও প্রচার অধিদপ্তরের (DIP) সেক্রেটারি আর. এলিস ভাজ (R. Alice Vaz) আপ প্রধান কেজরীওয়ালকে চিঠিতে জানিয়েছেন, ‘২০২২-২৩ আর্থিক বছরের শেষ তথ্য অনুযায়ী বিজ্ঞাপন বাদদ সরকারি কোষাগার থেকে খরচ হয়েছে ১০৬ কোটি ৪২ লক্ষ ২৬ হাজার ১২১ টাকা। এর মধ্যে বিজ্ঞাপন বাবদ ৯৯ কোটি ৩১ লক্ষ টাকা এবং জরিমানা সুদ হিসাবে ৬৪ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা সরকারী কোষাগারে জমা করতে হবে আম আদমি পার্টিকে।’

একইসঙ্গে তিনি জানান, ‘এই নোটিশ জারির ১০ দিনের মধ্যে অর্থ ফেরত দিতে হবে। যদি, তা মানা না হয়, তাহলে আইন অনুযায়ী আরও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আর, এই নোটিশকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। টুইটারে দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া লিখেছেন, 'দিল্লিতে অফিসারদের অসাংবিধানিক নিয়ন্ত্রণের উদাহরণ দেখুন – তথ্য ও প্রচার বিভাগের সচিব অ্যালিস ভাজ (IAS)-কে একটি নোটিশ পাঠাতে বলেছে বিজেপি। যেখানে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে দিল্লির বাইরে প্রকাশিত বিজ্ঞাপনগুলির জন্য অরবিন্দ কেজরিওয়াল জিকে অর্থ প্রদান করা উচিত।'

প্রশ্ন তুলে তিনি লেখেন, 'বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীদেরও বিজ্ঞাপন দিল্লির সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়, পুরো দিল্লিতে তাঁদের ছবি সহ হোর্ডিং রয়েছে। এসবের খরচ কি বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীদের কাছ থেকে আদায় করা হবে? এই কারণেই কি বিজেপি দিল্লির অফিসারদের উপর অসাংবিধানিক নিয়ন্ত্রণ চায়?'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in