মরতেও রাজি, কিন্তু পিছু হটবো না - জানালেন গ্রেপ্তার হওয়া আন্দোলনরত কৃষকদের পরিবার

মরতেও রাজি, কিন্তু পিছু হটবো না - জানালেন গ্রেপ্তার হওয়া আন্দোলনরত কৃষকদের পরিবার
গুরপিন্দর সিং-এর মাছবি নিউজক্লিকের সৌজন্যে

সাধারণতন্ত্র দিবসে দিল্লিতে ছড়িয়ে পড়া হিংসার ঘটনার পর বেশ কিছু আন্দোলনরত কৃষকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের সকলকে তিহার জেলে বন্দি করে রাখা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া কৃষকদের মধ্যে সবথেকে কম বয়স গুরপিন্দর সিংয়ের (২৩)। কেন্দ্রের তিন কৃষি আইনে বিরোধিতায় লড়াই করে পুলিশের হাতে বন্দি হওয়ায় নিজের ছেলের প্রতি গর্ব অনুভব করছেন বছর ৪৮-এর বুটা সিং। তিনি বলেন, 'প্রয়োজনে নিজেদের দাবিতে আমরা মরতেও রাজি। কিন্তু আন্দোলন থেকে কিছুতেই সরে আসব না।'

'তিনি জানিয়েছেন, কৃষি আইনের প্রত্যাহারের দাবিতে আমরা লড়াই চালিয়ে যাব। আমার ছেলে কোনও অন্যায় করেনি। সে পুলিশ নির্ধারিত রুট মেনেই চলছিল। সে একবারের জন্যও লালকেল্লায় প্রবেশ করেনি। তাহলে কেন আমরা ভয় পেয়ে থাকব?' উল্লেখ্য, একই গ্রামের মোট ৭ জনকে লালকেল্লায় হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এঁরা হলেন, সিমরজিৎ সিং (৩০), জসগীর সিং (৩২), সন্দীপ সিং (৩০), মাখন সিং (৪২), গুরপিন্দর সিং (২৩), ভীরান্দার সিং (৩২) ও লখবীর সিং (৪৫)।

একই গ্রামের যে পরিবারের সদস্যদের সাধারণন্ত্র দিবসের দিন হিংসা ছড়ানোর দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সেই পরিবারের প্রত্যেকেরই একই দাবি, প্রাণ গেলে যাক, কিন্তু নিজেদের আন্দোলন থেকে তাঁরা কিছুতেই সরে আসবেন না। কেন্দ্রের এই তিন কৃষি আইনের কাছে তাঁরা কিছুতেই মাথা নত করবেন না। তাই পরিবারের সদস্যরা জেলে বন্দি থাকলেও, তারা পুনরায় আন্দোলনস্থলে গিয়ে পড়ো হতে শুরু করেছেন।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in