হাড়ভাঙা পরিশ্রমের পরেও মিলছে কর্তৃপক্ষের দুর্ব্যবহার, উত্তরপ্রদেশে পদত্যাগ ১৪ চিকিৎসকের

চিকিৎসকদের বক্তব্য, মহামারীতে কঠোর পরিশ্রম করার পরেও তাঁদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হচ্ছে। শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
হাড়ভাঙা পরিশ্রমের পরেও মিলছে কর্তৃপক্ষের দুর্ব্যবহার, উত্তরপ্রদেশে পদত্যাগ ১৪ চিকিৎসকের
ছবি- প্রতীকী সৌজন্যে- ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বর্তমান কোভিফ পরিস্থিতিটে নিজেদের 'স্কেপগোট (বলির ছাগল)' বলে উল্লেখ করে রাজধানী লখনউ থেকে মাত্র ৪০ কিলোমিটার দূরে উত্তরপ্রদেশে উন্নাওয়ে ১৪ জন চিকিৎসক পদত্যাগ করলেন। তাঁরা উন্নাওয়ে কমিউনিটি হেলথ সেন্টার এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রের দায়িত্বে ছিলেন। ১৪ জন চিকিৎসকের মধ্যে ১১ জন বুধবার সন্ধ্যায় উন্নাওর চিফ মেডিক্যাল অফিসারের অফিসে গিয়ে তাঁর ডেপুটিকে চিঠি দেন।

চিকিৎসকদের বক্তব্য, মহামারীতে কঠোর পরিশ্রম করার পরেও তাঁদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হচ্ছে। শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পদত্যাগ করা ডাঃ শারদ বৈশ্য বলেন, আমরা ২৪ ঘন্টা করছি। কিন্তু আমাদের 'কাজ না করার' জন্য চিহ্নিত করা হচ্ছে।

জেলাশাসক, অন্যান্য কর্মকর্তা, এসডিএম এবং তহশিলদার সকলেই আমাদের কাজের তদারকি করছেন, মিটিং করছেন। আমাদের প্রতিনিধিদল দুপুরে বের হন, কোভিড পজিটিভ রোগীদের খোঁজখবর রাখেন, নমুনা তৈরি করেন, ওষুধ বিতরণ করেন। তারপর ফিরে আসার পর আমাদের এসডিএমের কাছে পর্যালোচনা সভায় আসতে অনুরোধ করা হয়েছে।

৩০ কিলোমিটার দূরে কেউ থাকলে এই রিভিউ মিটিংয়ের জন্য তাঁকে আবার ৩০ কিলোমিটার ফেরত আসতে হয়। আমাদের প্রমাণ করতে হবে যে আমরা কাজ করেছি। মনে হচ্ছে যেন আমরা কাজ করছি না বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। উন্নাওয়ের জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রবীন্দ্র কুমার একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমরা ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলছি। মুখ্যমন্ত্রীর অফিস থেকে তাঁদের সঙ্গে কথা বলেছে। সমস্যার সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in