Rajasthan: সদস্যপদ বাঁচাতে যে কোনো দলের সঙ্গে হাত মেলাতে রাজি ৪ BSP বিধায়ক

বিএসপি তরফ থেকেই দলত্যাগ বিরোধী আইনে ওই বিধায়কদের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানানো হয়। দু'দিন আগে সুপ্রিম কোর্ট এই বিধায়কদের চার সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেয়।
Rajasthan: সদস্যপদ বাঁচাতে যে কোনো দলের সঙ্গে হাত মেলাতে রাজি ৪ BSP বিধায়ক
BSP সুপ্রিমো মায়াবতীফাইল ছবি সংগৃহীত

দলত্যাগ বিরোধী আইন সংক্রান্ত এক আবেদনে সুপ্রিম কোর্টের নোটিশ পেয়ে বুধবার রাতেই দিল্লী দৌঁড়েছেন রাজস্থানের চার বহুজন সমাজ পার্টি বিধায়ক। সদস্য পদ বাঁচাতে ২০১৯ সালে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন তাঁরা। তাঁরা জানিয়েছেন বিধায়ক পদ বাঁচাতে তাঁরা যে কোন দলের সঙ্গে হাত মেলাতে রাজি।

চার বিধায়ক হলেন রাজেন্দ্র সিং গুধা, ওয়াজিব আলি, সন্দীপকুমার এবং লাখন সিং। ওয়াজিব আলি বলেছেন, তাঁদের এই রাজনৈতিক সমস্যা দিল্লীতেই মিটতে পারে, তাই তাঁরা দিল্লী যাচ্ছেন। বরিষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি আইনি পরামর্শ নেবেন সুপ্রিম কোর্টের নোটিশের জবাব দেওয়ার জন্য।

এই চার বিধায়ক ছাড়া আরো দুই কংগ্রেসে যোগ দেওয়া বিএসপি বিধায়ক যোগিন্দার সিং আওয়ানা এবং দীপচাঁদ খাইরিয়া দিল্লীতে যাননি। বুধবার রাতে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের সঙ্গে দেখা করে কংগ্রেসকে সমর্থন করার কথা জানান।

এটা উল্লেখ করা প্রয়োজন যে বিএসপি তরফ থেকেই দলত্যাগ বিরোধী আইনে ওই বিধায়কদের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানানো হয়। দু'দিন আগে সুপ্রিম কোর্ট এই বিধায়কদের চার সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেয়।

বিএসপি থেকে কংগ্রেসে যোগ দেওয়া বিধায়ক রাজেন্দ্র সিং গুধা বলেছেন তাঁরা দিল্লী যাচ্ছেন সদস্যপদ বাঁচানোর আইনি পথ খুঁজতে। তিনজন ইতিমধ্যেই দিল্লি চলে গেছেন। এখন সবার আগে সদস্যপদ বাঁচানো দরকার।

বিধায়ক সন্দীপ কুমার এবং ওয়াজিব আলি বলেন, মানুষ তাঁদের নির্বাচিত করেছেন, তাই তাঁরা কোনমতেই সদস্যপদ খোয়াতে চান না। মায়াবতী, অমিত শাহ বা রাহুল গান্ধী যে তাঁদের সদস্যপদ বাঁচাতে সাহায্য করবে তাঁরা তাঁকেই সমর্থন করবেন।

রাজস্থানে কংগ্রেসের ১০০ বিধায়ক আছে। এছাড়াও ১৬ জন নির্দল ও ৬ বিএসপি বিধায়কের সমর্থন নিয়ে তাদের মোট বিধায়ক সংখ্যা ১১৬। এই ছ'জন চলে গেলেও সরকার বিপদে পড়বে না। তবে চাপ থাকবেই কারণ বিক্ষুব্ধরা মাথা চাড়া দিচ্ছে এবং পাইলটের অনুগামীরা তাঁকেই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান।

-With IANS Inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.