BBC-র পাশে থাকার বার্তা ঋষি সুনকের সরকারের! সম্পাদকীয় স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল

ব্রিটিশ সরকার বলে, 'BBC সরকার ও বিরোধী দলের সমালোচনা করে। কিন্তু কখনও বিবিসির সম্পাদকীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে না সরকার। ভারত-সহ বিশ্বের সকল বন্ধুদের জানাতে চাই, এই স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ।'
BBC-র পাশে থাকার বার্তা ঋষি সুনকের সরকারের! সম্পাদকীয় স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল

'আমরা বিবিসি (BBC)-র পাশে আছি। আমরা বিবিসিকে অর্থায়ন করি। আমরা মনে করি যে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা চাই যে বিবিসির সম্পাকদীয় স্বাধীনতা থাকুক।' - মঙ্গলবার, বিবিসির পাশে দাঁড়িয়ে এই মন্তব্য করেছেন ব্রিটেনের ফরেন, কমনওয়েলথ এবং ডেভলপমেন্ট অফিসের পার্লামেন্টারি আন্ডার-সেক্রেটারি ডেভিড রুটলে (David Rutley)।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, 'এটি (BBC) আমাদের (সরকারের) সমালোচনা করে, (বিরোধী দল) লেবার পার্টিরও সমালোচনা করে। কিন্তু কখনও বিবিসির সম্পাদকীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে না সরকার। বিবিসির সেই স্বাধীনতা রয়েছে বলে আমরা বিশ্বাস করি। ভারত-সহ বিশ্বের সকল বন্ধুদের জানাতে চাই, এই স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ।'

একইসঙ্গে তিনি জানান, বিবিসির বিরুদ্ধে যে অভিযোগ তুলেছে ভারতের আয়কর দফতর, সে বিষয়ে তিনি এখনই কোনও মন্তব্য করতে পারবেন না।

অন্যদিকে, ভারতে বিবিসি'র অফিসে আয়কর তল্লাশি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ সাংসদ তনমনজিৎ সিং (Tanmanjeet Singh Dhesi)। এই টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, 'ইংল্যান্ডে আমরা অত্যন্ত গর্ব অনুভব করি আমাদের সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে, যে ভাবে বিবিসি বা অন্যান্য নামী সংবাদমাধ্যম ইংল্যান্ডের সরকার, তার প্রধানমন্ত্রী এবং বিরোধীদের সমালোচনা করে।'

তিনি জানান, 'এই কারণেই আমরা আরও বেশি চিন্তিত হয়ে পড়েছি। কারণ, একটি তথ্যচিত্র তৈরির পরই এই আয়কর হানা গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ এবং সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে অনেক প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে।'

গত সপ্তাহে, বিবিসির দিল্লি ও মুম্বইয়ের অফিসে এক টানা ৫৯ ঘণ্টা তল্লাশি অভিযান চালায় ভারতের আয়কর দফতর। দাবি করা হয়, করছাড় বিষয়ক নানা বেনিয়ম করেছে বিবিসি। এই অভিযানকে 'সমীক্ষা' হিসাবে অভিহিত করেছে আয়কর দফতর।

২০০২ সালের গুজরাট হিংসা নিয়ে তৈরি বিবিসি (BBC)-র তথ্যচিত্র 'ইন্ডিয়া: দ্যা মোদী কোয়েশ্চেন' প্রচারের কয়েক সপ্তাহ পরে এই অভিযান চালায় আয়কর দফতর (Income Tax)।

উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি, বিবিসি (BBC)-র এই তথ্যচিত্রকে ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে মোদী সরকার। তথ্য প্রযুক্তি বিধি, ২০২১-এর অধীনে জরুরি ক্ষমতা ব্যবহার করে, তথ্যচিত্রের লিঙ্ক শেয়ার করা ইউটিউব ভিডিও এবং টুইটার পোস্ট ব্লক করার নির্দেশ দেয় কেন্দ্র। এই ঘটনার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এই সমীক্ষা চালায় আয়কর দফতরের অফিসারেরা।

BBC-র পাশে থাকার বার্তা ঋষি সুনকের সরকারের! সম্পাদকীয় স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল
IT Raid: ৫০ ঘন্টা পার, BBC-র অফিসে এখনও চলছে আয়কর অভিযান!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in