Ukraine Crisis: কিয়েভ থেকে দূরে সরছে রুশ বাহিনী - বিভ্রান্ত করার কৌশল, বলছে ইউক্রেন

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর বিশ্বাস - এই সেনা প্রত্যাহার করা সাময়িক। সম্ভবত অন্য ইউনিটকে আনা হবে কিয়েভে। রুশ বাহিনীর অবস্থান সম্পর্কে একটি “ভুল ধারণা” তৈরি করার জন্যই কিয়েভ থেকে সরছে তারা।
Ukraine Crisis: কিয়েভ থেকে দূরে সরছে রুশ বাহিনী - বিভ্রান্ত করার কৌশল, বলছে ইউক্রেন
ফাইল চিত্র

রাশিয়ার ‘সেনা বাহিনী প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি’ বিভ্রান্ত করার জন্য প্রচার করা হচ্ছে, এমনটাই মত ইউক্রেন সেনা কর্মকর্তাদের। ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ ফেসবুকে পোস্ট করে বলেন, রাশিয়ান ইউনিটগুলি কিয়েভ এবং চেরনিহিভ উভয় শহর থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। তবে এটা তাঁদের কৌশল মাত্র। ইউক্রেন বাহিনীকে বিভ্রান্ত করার জন্য এগুলো করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, রাশিয়া ইতিমধ্যে বলেছে যে তারা এখন পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলে অভিযানের দিকে মনোনিবেশ করবে।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী বিশ্বাস করে - এই সেনা প্রত্যাহার করা সাময়িক। সম্ভবত অন্য ইউনিটকে আনা হবে কিয়েভে। ইউক্রেনের সামরিক নেতৃত্বকে বিভ্রান্ত করা এবং রুশ বাহিনীর অবস্থান সম্পর্কে একটি “ভুল ধারণা” তৈরি করার জন্যই কিয়েভ থেকে সরছে তারা। পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবির বলেন, “রাশিয়ান সৈন্যরা শহর থেকে দূরে সরে গেলেও কিয়েভের জন্য হুমকি রয়ে গেছে।” ডনবাস অঞ্চলে রুশ বাহিনীর দাপট অব্যাহত রয়েছে বলে বিবৃতে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন - “ইউক্রেনীয়রা নির্বোধ নয়”। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার ইস্তাম্বুলে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু হওয়ার পর এই প্রতিশ্রুতি আসে রাশিয়ার তরফ থেকে। তবে জেলেনস্কি বলেছেন যে আলোচনার প্রাথমিক লক্ষণ “ইতিবাচক”।

অন্যান্য দেশগুলিও সতর্কতার সাথে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, “তাদের (রাশিয়া) কাজ কী তা না দেখা পর্যন্ত আমি কিছু প্রতিক্রিয়া দেব না।” মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, “ রাশিয়া যা বলে এবং যা করে তার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।”

- with IANS inputs

Ukraine Crisis: কিয়েভ থেকে দূরে সরছে রুশ বাহিনী - বিভ্রান্ত করার কৌশল, বলছে ইউক্রেন
যুদ্ধ চলাকালীন ঘুরপথে রাশিয়ায় ব্যবসা করছে ইউক্রেনের শিল্পপতিরা, তালিকায় নাম জেলেনস্কিরও!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.