শান্তিপূর্ণ সমাবেশ, মতপ্রকাশের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত - কৃষি আন্দোলনে ট্যুইট UN Human Rights-এর
শুক্রবার উত্তরপ্রদেশের শামলিতে কৃষকদের মহাপঞ্চায়েতছবি সৌজন্য - সায়ন্তন বেরার ট্যুইট

শান্তিপূর্ণ সমাবেশ, মতপ্রকাশের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত - কৃষি আন্দোলনে ট্যুইট UN Human Rights-এর

বিতর্কিত তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে গত প্রায় ৭৫ দিন ধরে চলা কৃষক আন্দোলন এবার আন্তর্জাতিক মহলেও সাড়া ফেলেছে। ইতিমধ্যেই আন্দোলনরত কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন মার্কিন পপ তারকা রিহানা, সুইডেনের পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ একাধিক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব‍্যক্তিত্ব। এরই মাঝে এবার কৃষক আন্দোলন নিয়ে ময়দানে নামলো জাতিসংঘ।

শুক্রবার 'ইউনাইটেড নেশনস হাই কমিশনার ফর হিউম্যান রাইটস' বা OHCHR-এর তরফ থেকে সরকার এবং আন্দোলনকারী কৃষক, উভয়পক্ষকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম পালনের বার্তা দেওয়া হয়েছে। OHCHR-এর ট‍্যুইটার হ‍্যান্ডল থেকে করা ট‍্যুইটে বলা হয়, "চলমান কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে সরকার কর্তৃপক্ষ এবং প্রতিবাদকারী, উভয়পক্ষকেই সর্বোচ্চ সংযম পালনের আহ্বান জানাচ্ছি আমরা। অনলাইন বা অফলাইন, সবক্ষেত্রেই শান্তিপূর্ণ সমাবেশ এবং মতপ্রকাশের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত। সকলের জন‍্য মানবাধিকারকে সম্মান জানিয়ে ন‍্যায়সঙ্গত সমাধান খুঁজে বের করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।"

গত সেপ্টেম্বর মাসে বিরোধীদের প্রবল আপত্তি সত্ত্বেও সংসদের উভয় কক্ষে পাশ ‌হয়েছিল তিন কৃষি আইন। কৃষকদের আশঙ্কা নতুন এই আইনের ফলে ফসলের ন‍্যূনতম সহায়ক মূল্য‌ বা এমএসপি পাবেন না তাঁরা এবং কর্পোরেটদের হাতের পুতুল হয়ে থাকতে হবে তাঁদের। এই আইনগুলো বাতিলের দাবিতে নভেম্বর মাসের শেষ থেকে দিল্লির সীমানায় আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন দেশের লক্ষাধিক কৃষক। ইতিমধ্যেই সরকারের সাথে ১১ বার বৈঠকে বসেছেন কৃষক নেতারা। আইন সংশোধন সহ দেড় বছরের জন্য আইন প্রয়োগ স্থগিতের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফ থেকে, কিন্তু কৃষকরা আইন বাতিলের দাবিতে অনড় রয়েছেন।

আমাদের সার্ভেতে যোগ দিন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in