বিপ্লব দেবের 'নেপালে বিজেপির সরকার গঠন' মন্তব্যে ক্ষোভ, সরকারিভাবে আপত্তি জানালো নেপাল

সম্প্রতি বিপ্লব দেব দাবি করেছেন, প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কা এবং নেপালে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নিজেদের সংগঠন গড়ে তুলে সরকার গড়ার পরিকল্পনা করছে।
বিপ্লব দেবের 'নেপালে বিজেপির সরকার গঠন' মন্তব্যে ক্ষোভ, সরকারিভাবে আপত্তি জানালো নেপাল
নেপালের বিদেশমন্ত্রী প্রদীপ গাওলি ও ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবফাইল ছবি সংগৃহীত

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ নেপাল। ইতিমধ্যেই সরকারিভাবে "অবজেকশন" জানিয়েছে দেশটি। নেপালের বিদেশমন্ত্রী প্রদীপ গাওলি একথা জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বিপ্লব দেব দাবি করেছেন, প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কা এবং নেপালে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নিজেদের সংগঠন গড়ে তুলে সরকার গড়ার পরিকল্পনা করছে।

বিপ্লব দেবের মন্তব্য নিয়ে করা একটি সংবাদ ট্যুইটারে শেয়ার করে সেখানে নেপালের প্রধানমন্ত্রী এবং প্রদীপ গাওলিকে ট্যাগ করেছিলেন নেপালের এক ট্যুইটার ইউজারকারী। এই ট্যুইটের জবাবে প্রদীপ গাওলি লেখেন, "ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে সরকারিভাবে আপত্তি জানানো হয়েছে।"

এর আগে কাঠমান্ডু পোস্টের একটি প্রতিবেদনেও দাবি করা হয়েছিল, বিপ্লব দেবের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ নেপাল। এই মন্তব্যে আপত্তি জানিয়েছে সরকার।

রবিবার ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় দলীয় কর্মসূচিতে মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব দাবি করেন, ২০১৮ সালে অমিত শাহ যখন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি ছিলেন, তখন দেশের সমস্ত রাজ্যে জয়লাভের পর "বিদেশে" দলের সম্প্রসারণের পরিকল্পনার কথা একটি মিটিংয়ে বলেছিলেন উনি।

এই কথোপকথনের বিষয়ে বিস্তারিতভাবে বিপ্লব দেব বলেন, "আমরা রাজ্য অতিথিশালায় কথা বলছিলাম। তখন অজয় জামওয়াল (বিজেপির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সম্পাদক) বলেন বিজেপি বেশ কয়েকটি রাজ্যে সরকার গঠন করেছে। এর জবাবে অমিত শাহ বলেন, 'শ্রীলঙ্কা এবং নেপাল বাকি আছে এখনও। শ্রীলঙ্কা, নেপালে দলের সংগঠন গড়ে তুলতে হবে এবং সরকার গঠনের জন্য সেখানেও জিততে হবে আমাদের।'"

বিপ্লব দেবের এই মন্তব্যের পরই রাষ্ট্রদূত নীলাম্বর আচার্য নেপাল ও ভূটানের ভারতের বিদেশমন্ত্রকের যুগ্ম-সচিব অরিন্দম বাগচিকে ফোন করে এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন।

আমাদের সার্ভেতে যোগ দিন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in