Ukraine Crisis: রাষ্ট্রসংঘে ফের রাশিয়ার বিরুদ্ধে ভোটদানে বিরত থাকল ভারত

ভারত সহ মোট ৩৫টি দেশ ওই প্রস্তাবের পক্ষে বা বিপক্ষে ভোটদান প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়নি। ৫টি দেশ প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে আর ১৪৩ টি দেশ ভোট দিয়েছে প্রস্তাবের পক্ষে।
পুতিন - মোদী
পুতিন - মোদী ফাইল চিত্র

ফের রাষ্ট্রসংঘে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ভোটদানে বিরত থাকল ‘মিত্র’ ভারত। রাষ্ট্রসংঘ ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চল দখলকে নিন্দা জানিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব আনে। সেই প্রস্তাবের ভোটদানে অংশই ভারত নেয়নি।

কিছুদিন আগেই ইউক্রেনের চারটি প্রদেশ গণভোটের মাধ্যমে দখলে নিয়েছিল রাশিয়া। তার নিন্দা জানিয়ে বুধবার রাষ্ট্রসংঘে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ভারত সহ মোট ৩৫টি দেশ ওই প্রস্তাবের পক্ষে বা বিপক্ষে ভোটদান প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়নি। ৫টি দেশ প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে আর ১৪৩ টি দেশ ভোট দিয়েছে প্রস্তাবের পক্ষে।

ভোটদানে বিরত থাকা প্রসঙ্গে ভারত এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভারত রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে চিন্তিত। নাগরিকরা যেভাবে মারা যাচ্ছেন তার নিন্দা আমরা জানিয়েছি। মানুষের জীবনের বিনিময়ে কোনও কিছু পাওয়া যায় না। এর আগেও আমরা বলেছি আমরা সর্বদা শান্তি চাই। এটাও ঠিক রাশিয়া ওই অঞ্চলগুলিতে গণভোটের মাধ্যমে দখল করেছে। পাশাপাশি আমরা রাষ্ট্রসংঘকেও সম্মান করি।

উল্লেখ্য, ইউক্রেনের ডনেৎস্ক, লুহানেস্ক, খেরসন ও জাপোরিঝিয়ায় গণভোট হয়। তাতে দেখা যায় দক্ষিণের দু’টি ও পূর্বের দু’টি প্রদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ রাশিয়ার অন্তর্ভুক্তির পক্ষেই ভোট দেন। এই চার প্রদেশ ইউক্রেনের মোট ভূখণ্ডের প্রায় ১৫ শতাংশ।

ওই চারটি প্রদেশের মধ্যে ডনেৎস্কে রাশিয়ার পক্ষে ভোট পড়ে ৯৯.২৩ শতাংশ। লুহানস্কে ৯৮.৪২% জনগণ রাশিয়াকে ভোট দেয়। জাপোরিঝিয়ার গণভোটের ৯৩.১১ শতাংশ ভোট রাশিয়ার পক্ষেই যায়। খেরসনে শতাংশের হার (৮৭.০৫) কমলেও তা সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্য যথেষ্ট। আর এই জয়ের পরেই লুহানেস্কের রাস্তায় রাশিয়ান সেনার একাধিক পোস্টার দেখা গিয়েছিল। তাতে লেখা ছিল ‘আমরা আমাদের সেনা ও জয়ের প্রতি আত্মবিশ্বাসী’।

পুতিন - মোদী
রাষ্ট্রসংঘে 'মিত্র' রাশিয়ার বিরুদ্ধে ভোট ভারতের, সম্পর্কে চিড় নাকি নতুন কোনো সমীকরণ!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in