Haqqani vs Taliban: তালিবান নেতা বরাদরকে বন্দি রাখা হয়েছে বলে দাবি ব্রিটিশ ম্যাগাজিনের

চলতি মাসের শুরুর দিকে বরাদর গোষ্ঠী এবং হক্কানি গোষ্ঠীর মধ্যে আফগানিস্তানে সরকার গঠন নিয়ে সংঘর্ষ হয়। হক্কানি গোষ্ঠীর পক্ষে আছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই।
Haqqani vs Taliban: তালিবান নেতা বরাদরকে বন্দি রাখা হয়েছে বলে দাবি ব্রিটিশ ম্যাগাজিনের
তালিবানি শীর্ষ নেতা মোল্লা আব্দুল ঘানি বারাদারফাইল ছবি টিম ইমারজিং পাকিস্তান ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

আফগানিস্তানে রেষারেষি থেকে এবার চরমে উঠল অভ্যন্তরীণ তালিবানি সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রী মোল্লা বরাদর এবং হক্কানি জঙ্গিগোষ্ঠীর দ্বন্দ্ব। বরাদরকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, কানাঘুষো এও শোনা যাচ্ছে যে তালিবানি নেতা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার মৃত্যু হয়েছে। এমনটাই দাবি করেছে ব্রিটিশ ম্যাগাজিন দ্য স্পেক্টেটর।

দ্য স্পেক্টেটরে বলা হয়, গত ১৫ অগস্ট কাবুলের পতন হয়। তালিবান এবং হক্কানি জঙ্গিগোষ্ঠীর মধ্যে তখন থেকেই ক্ষমতা দখলের লড়াই চলছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে বরাদর গোষ্ঠী এবং হক্কানি গোষ্ঠীর মধ্যে আফগানিস্তানে সরকার গঠন নিয়ে সংঘর্ষ হয়। হক্কানি গোষ্ঠীর পক্ষে আছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই।

এদিকে ওই ম্যাগাজিনে বরাদরকে ‘প্রধান অভাগা’ বলে কটাক্ষ করেছিল হক্কানি নেটওয়ার্ক। বৈঠক চলাকালীন হক্কানি জঙ্গিগোষ্ঠীর খালিল-উল-রহমান বরাদরকে ঘুষি মারে। তারপর বেশ কয়েকদিন কোনও খোঁজ মেলেনি বরাদরের। পরে কান্দাহারে দেখা যায় তাঁকে। বিভিন্ন নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি তালিবান নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যমে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করতে বাধ্য হয়। তাতে তাঁকে ‘বন্দি করে রাখার ভিডিওর মতো মনে হচ্ছে’ বলে ম্যাগাজিনের দাবি।

আখুন্দজাদার বিষয়ে দ্য স্পেক্টেটরে দাবি ‘কয়েকদিন ধরে তাকে দেখা যায়নি বা তার গলা শোনা যায়নি। কয়েকটা মহল থেকে জল্পনা ছড়িয়েছে যে আখুন্দজাদার মৃত্যু হয়েছে।’

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.