মতপ্রকাশের স্বাধীনতার নীতি রক্ষা ও স্থানীয় আইনকে সম্মান করা হবে - কেন্দ্রের নোটিশের জবাবে ট্যুইটার

কৃষক আন্দোলন ঘিরে জনজীবনে অশান্তি ছড়ানোর আশঙ্কায় টুইটারকে ১,১৭৮ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার নির্দেশ দেয় ভারত সরকার। সরকারের দাবি, ওই অ্যাকাউন্টের সঙ্গে পাকিস্তানের মদতে খালিস্তান সমর্থনকারীদের সম্পর্ক আছে।
মতপ্রকাশের স্বাধীনতার নীতি রক্ষা ও স্থানীয় আইনকে সম্মান করা হবে - কেন্দ্রের নোটিশের জবাবে ট্যুইটার
ছবি প্রতীকী, সংগৃহীত

কৃষক আন্দোলন ঘিরে জনজীবনে অশান্তি ছড়ানো তথা তার অপব্যবহারের আশঙ্কায় টুইটারকে আরও ১,১৭৮টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার নির্দেশ দিল ভারত সরকার। সরকারের দাবি, ওই অ্যাকাউন্টগুলোর সঙ্গে পাকিস্তানের মদতে খালিস্তান সমর্থনকারীদের সম্পর্ক রয়েছে। কৃষক আন্দোলন ঘিরে ভুয়ো খবর ছড়াতেই সেগুলো কাজ করছে বলেও দাবি সরকারের। এই নির্দেশের জবাবে টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের মৌলিক নীতি রক্ষা করার সময় স্থানীয় আইনকেও সম্মান করে তারা।

এর আগে ৩১ জানুয়ারি টুইটারকে এ সংক্রান্ত এক নোটিস পাঠিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক, যেখানে ২৫৭টি অ‍্যাকাউন্ট ব্লক করার কথা বলা হয়েছিল। এরপর ৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে আবার নোটিশ পাঠানো হয়েছে। প্রশাসনিক সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক তথা গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর পরামর্শেই ওই নোটিস পাঠানো হয়েছে। এক প্রশাসনিক কর্তার দাবি, 'মূলত খলিস্তানিদের সঙ্গে সহানুভূতিশীল এমন লোকজনের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে টুইটারকে। তা ছাড়া যে সব অ্যাকাউন্ট পাক মদতে চলছে, তেমন অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রেও এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। এই ধরনের অ্যাকাউন্টে অটোমেটেড বট রয়েছে বলে দাবি সরকারের। মূলত কৃষক আন্দোলন ঘিরে ভুয়ো খবর পরিবেশন করা বা উস্কানিমূলক বক্তব্য ছড়িয়ে দেওয়ার জন্যই এগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে।

ট‍্যুইটারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, "ট‍্যুইটারে সম্ভাব্য অবৈধ বিষয়বস্তু সম্পর্কে আমরা যদি বৈধ নোটিস পাই, তবে ট‍্যুইটারের নীতি ও স্থানীয় আইন উভয়ের অধীনে বিষয়টি পর্যালোচনা করি। বিষয়বস্তুটি টুইটারের নিয়ম লঙ্ঘন করলে তা সরিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু যদি বিষয়টি কেবল একটি নির্দিষ্ট এক্তিয়ারে অবৈধ হয়, তাহলে আমরা কেবল ওই লোকেশনে বিষয়টিকে আটকে রাখতে পারি। এই সমস্ত ক্ষেত্রেই অ‍্যাকাউন্ট হোল্ডারকে আমরা সরাসরি বিষয়টি জানিয়ে থাকি, যাতে তিনি সচেতন থাকেন যে তাঁর অ‍্যাকাউন্ট নিয়ে আমরা একটি আইনি নোটিস পেয়েছি। আমাদের লক্ষ্য মত প্রকাশের মৌলিক নীতি রক্ষার পাশাপাশি স্থানীয় আইনকেও শ্রদ্ধা জানানো।"

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in