স্বাধীনতা সূচকে ৪ ধাপ নেমে ভারতের মান 'স্বাধীন' থেকে হল 'আংশিক স্বাধীন'

দেশে স্বাধীনতার মান কমার পেছনে অন্যতম কারণ হিসেবে বিজেপির সাম্প্রদায়িক মনোভাবকেও দায়ী করা হয়েছে রিপোর্টে। কোভিড পরিস্থিতিতে কীভাবে মুসলিমদের ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য দায়ী করা হয়েছিল বলা হয়েছে এখানে।
স্বাধীনতা সূচকে ৪ ধাপ নেমে ভারতের মান 'স্বাধীন' থেকে হল 'আংশিক স্বাধীন'
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহফাইল ছবি

২০২১ সালে ফ্রীডম ইনডেক্সে ভারত 'স্বাধীন' গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র থেকে 'আংশিক স্বাধীন' গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের তালিকায় নেমে এসেছে। ৬৭ থেকে ৪ ধাপ কমে ভারতের স্কোর হয়েছে ৭১। ভারতের মতো বৃহত্তর গণতান্ত্রিক দেশগুলোর এই অবস্থান নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ফ্রিডম হাউস-এর করা এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে এই তথ্য।

'ফ্রিডম ইন দ্য ওয়ার্ল্ড ২০২১' নামক এই সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার ও শরিক দলের ভাবমূর্তিকে বিচারে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে। কোভিড মহামারিকালে কেন্দ্রের সরকার ও রাজ্য সরকারগুলোর ভুল সিদ্ধান্তের ফলে বহু সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের। এইসব বিষয়গুলোকে মাথায় রেখেই ভারতকে 'আংশিক স্বাধীন' বলে উল্লেখ করা হলেও কাশ্মীরকে 'স্বাধীন নয়' ক্যাটাগরিতেই রাখা হয়েছে সমীক্ষায়।

বুধবার প্রকাশিত ওই রিপোর্টে ভারতে স্বাধীনতার মান কমার পেছনের অন্যতম কারণ হিসেবে বিজেপির সাম্প্রদায়িক মনোভাবকেও দায়ী করা হয়েছে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে কীভাবে মুসলিমদের ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য দায়ী করে তাদের একঘরে করা হয়েছিল সেই ঘটনার উল্লেখ করা হয়েছে এখানে। রিপোর্ট বলা হয়েছে, চিনের মতো দেশের থেকে ভারতকে বাঁচাতে মোদি ও তাঁর দল সরকার স্বৈরতান্ত্রিক আচরণ করছে।

মূলত রিপোর্টটিতে বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে, স্বাধীনতার বিরোধিরা জোর করে বোঝানোর চেষ্টা করছে, গণতন্ত্র আসলে মানুষের চাহিদা পূরণ করতে অক্ষম। সতর্কবার্তা দিয়ে রিপোর্টটিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মুক্ত সমাজ যদি মৌলিক পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়, তবে বিশ্ব তাদের প্রতি আরও বিরূপ হয়ে উঠবে। তাহলে কোনও দেশই স্বৈরতান্ত্রিক শাসনের ধ্বংসাত্মক প্রভাব থেকে নিরাপদ থাকবে না।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in