Denmark: ডেনমার্ক নির্বাচনে চমক, অপ্রত্যাশিতভাবে জয়লাভ বামপন্থী জোট 'রেড ব্লক'-এর

১৭৫ আসনের মধ্যে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটসের আসন সংখ্যা ৫০। রেড গ্রিন অ্যালায়েন্স পেয়েছে ৯টি। গ্রিন লেফট পার্টি পেয়েছে ১৫টি আসন।
মেত্তে ফ্রেডারিকসন
মেত্তে ফ্রেডারিকসনফাইল চিত্র - সংগৃহীত

ডেনমার্কের সাধারণ নির্বাচনে নাটকীয় জয় বামপন্থী জোট রেড ব্লকের। সকলকে পেছনে ফেলে ১৭৯ টি আসনের মধ্যে বামপন্থী জোট পেয়েছে ৮৭টি আসন। যার জেরে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী পদে থাকতে চলেছেন মেত্তে ফ্রেডারিকসন।

ডেনমার্ক নির্বাচনে বামজোটের ফলাফল কার্যত অপ্রত্যাশিত। কারন, বুথ ফেরত সমীক্ষায় কোনো পক্ষই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না বলেই আভাস মিলেছিল। তাছাড়া ক্ষমতাসীন বামজোট বেশ বেকায়দায় ছিল।

নির্বাচনে ফ্রেডারিকসনের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস পেয়েছে ২৭.৫% ভোট। তারাই পার্লামেন্টে সব থেকে বেশি ভোট পেয়েছে। ফোকেটিং (ডেনমার্কের পার্লামেন্ট)-এ ১৭৫ আসনের মধ্যে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটসের আসন সংখ্যা ৫০। রেড গ্রিন অ্যালায়েন্স পেয়েছে ৯টি। গ্রিন লেফট পার্টি পেয়েছে ১৫টি আসন। তবে এই নির্বাচনে লিবারেল অ্যালায়েন্সও চমক দিয়ে ১৪ টি আসন পেয়েছে। অন্যদিকে ফেরো আইল্যান্ড ও গ্রীণল্যান্ডের মোট ৪টি আসনে ১টি করে মোট ২টি আসন পেয়েছে বামপন্থী জোট।

তবে এই নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি চমক দিয়েছে নতুন মধ্যপন্থী রাজনৈতিক দল 'মডারেট'। আত্মপ্রকাশ করেই ১৬টি আসন দখল করেছে। ভোট পেয়েছে প্রায় ৯ শতাংশ ভোট।

উল্লেখ্য, কোভিড মোকাবিলায় ফ্রেডারিকসনের সরকার প্রশংসিত হলেও ‘মিঙ্ক’ (এক ধরণের প্রানী) ইস্যুতে বেশ সমালোচিত হতে হয়। সরকারের ধারণা ছিল মিঙ্কের জন্য দেশে করোনা ছড়াতে পারে। তার জন্য ২০২০ সালে ১.৫ কোটি মিঙ্ক মেরে ফেলেছিল ড্যানিস সরকার।

সিদ্ধান্তটি কার্যত বেআইনি ছিল। যা নিয়ে জোটসঙ্গী একটি দল সরকার থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ার হুমকিও দিয়েছিল। ভোটারদেরও তারা ভোট না দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। এই নির্বাচনে মুদ্রাস্ফীতি, জলবায়ুর পরিস্থিতি বড় ভূমিকা পালন করেছে।

২০১৯ সালে রাসমুসেনকে হারিয়ে মাত্তি ফ্রেডরিকসনের সোস্যাল ডেমোক্র্যাট সরকার বেশ দক্ষ হাতেই প্রশাসন সামলেছে। পুনরায় এই জয় ভবিষ্যতে তাদের আরও অক্সিজেন যোগাবে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

মেত্তে ফ্রেডারিকসন
Lula da Silva: ব্রাজিলের নবনির্বাচিত বামপন্থী রাষ্ট্রপতির কিছু অজানা তথ্য জানুন

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in