Afganistan: তালিবানিদের বিরোধিতায় অস্ত্র হাতে রাস্তায় নেমে মহিলাদের মিছিল

ঘোর এলাকার মহিলা সংগঠনের প্রধান হালিমা পরাতিস জানান, এই প্রতিবাদে এমন অনেক মহিলা এসেছেন যারা দেশের নিরাপত্তা বাহিনীকে সাহস জোগাতে চাইছেন। অনেকেই সরাসরি এদের বিরোধিতা করার জন্য যুদ্ধক্ষেত্রে যেতে তৈরি।
Afganistan: তালিবানিদের বিরোধিতায় অস্ত্র হাতে রাস্তায় নেমে মহিলাদের মিছিল
আফগানিস্তানে তালিবানিদের বিরোধিতায় অস্ত্র হাতে মহিলাদের বিক্ষোভছবি - ডঃ অজয়িতার ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

উত্তর এবং মধ্য আফগানিস্থানে তালিবানিদের বিরোধিতায় রাস্তায় অস্ত্র হাতে নেমে এলেন মহিলারা। দ্য গার্ডিয়ানে এই সংক্রান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। যে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে – শয়ে শয়ে মহিলারা অস্ত্র হাতে রাস্তায় নেমে তালিবানিদের বিরোধিতায় মিছিল করছেন এবং সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোষ্ট করেছেন।

মধ্য ঘোর প্রদেশে সপ্তাহের শেষে হাজারে হাজারে মহিলারা রাস্তায় নেমেছিলেন। তাঁরা তালিবান বিরোধী শ্লোগান সহকারে এক বিরাট জমায়েত করেন। এই জমায়েত প্রসঙ্গে ঘোর এলাকার মহিলা সংগঠনের প্রধান হালিমা পরাতিস জানান, এই প্রতিবাদে এমন অনেক মহিলা এসেছেন যারা দেশের নিরাপত্তা বাহিনীকে সাহস জোগাতে চাইছেন। এমনকি এঁদের মধ্যে অনেকেই সরাসরি তালিবানিদের বিরোধিতা করার জন্য যুদ্ধক্ষেত্রে যেতেও প্রস্তুত। আমরা প্রায় একমাস আগে গভর্নরকে জানিয়েছি আমরা যুদ্ধে যেতে রাজী আছি।

আজ থেকে প্রায় ২০ বছর আছে উত্তর বাদাকাশান প্রদেশ তালিবানি বিরোধিতার বড়ো কেন্দ্র ছিলো। যদিও দেশ থেকে আমেরিকান বাহিনী চলে যাবার পর থেকে আফগানিস্থানের বিভিন্ন অঞ্চলে ধীরে ধীরে তালিবানিরা দখল নিচ্ছে। এর মধ্যেই কমপক্ষে ১২টি গ্রামীণ প্রদেশের দখল নিয়েছে তালিবানিরা। যার মধ্যে বাদাকাশানও আছে।

নিজেদের দখল নেওয়া অঞ্চলে মহিলাদের ওপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। মহিলাদের যাতায়াত, পোশাক, শিক্ষার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। লিফলেট বিলি করে মহিলাদের বোরখা পরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তালিবানদের এই নির্দেশ প্রসঙ্গে এক মহিলা জানিয়েছেন, কোনো মহিলাই বিনা কারণে লড়াই করতে চায় না। কিন্তু আমরা আমাদের পড়াশুনো চালিয়ে যেতে চাই। হিংসা থেকে দূরে থাকতে চাই। কিন্তু আমাদের ওপর শর্ত চাপানো হচ্ছে। তাই প্রতিবাদ করা ছাড়া কোনো রাস্তা খোলা নেই। আমরা অস্ত্র তুলে নিচ্ছি কারণ, আমরা তালিবানিদের দেখিয়ে দিতে চাই যে আমরাও লড়াই করতে পারি। আমরা চাইনা আমাদের দেশের নিয়ন্ত্রণ এমন কারোর হাতে যাক যারা মহিলাদের বিরুদ্ধে নিয়ম জারি করতে চাইছে।

- with inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in