Arundhati Roy: 'শক্তিশালী কন্ঠকে দমানো যাবে না' - ২০২৪ পেন পিন্টার পুরস্কার জিতলেন অরুন্ধতী রায়

People's Reporter: এই পেন পিন্টার পুরস্কার দেওয়া হয় ব্রিটেন, আয়ারল্যান্ড এবং কমনওয়েলথভুক্ত দেশুগুলির লেখকদেরকে।
অরুন্ধতী রায়
অরুন্ধতী রায়ফাইল চিত্র - সংগৃহীত

২০২৪ পেন পিন্টার পুরস্কার জিতলেন সাহিত্যিক তথা সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়। অসামান্য সাহিত্য প্রতিভার পাশাপাশি তাঁর সাহসিক মানসিকতার জন্য এই বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হবে তাঁকে। ১০ অক্টোবর লন্ডনের ব্রিটিশ লাইব্রেরীতে ভারতীয় সাহিত্যিকের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

এই পেন পিন্টার পুরস্কার দেওয়া হয় ব্রিটেন, আয়ারল্যান্ড এবং কমনওয়েলথভুক্ত দেশুগুলির লেখকদের। ২০০৯ সাল থেকে দেওয়া হয় এই পুরস্কার ব্রিটিশ নাট্যকার হ্যারল্ড পিন্টারের নামে। ইংলিশ পেন-র চেয়ারপার্সন রুথ বর্থউইক, লেখক রজার রবিনসন এবং অভিনেতা খালিদা আবদাল্লা এই তিনজন মিলে জয়ী হিসেবে অরুন্ধতী রায়কে বেছে নেন।

কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, 'অরুন্ধতী রায়ের দৃষ্টিভঙ্গির প্রতি সম্মান জানাই। তিনি একজন চিন্তাবিদ। স্বাধীনতা এবং ন্যায়বিচারের উজ্জ্বল কন্ঠস্বর তিনি। তিনি বুদ্ধি এবং সৌন্দর্যের মাধ্যমে অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলেন। তাঁর শক্তিশালী কন্ঠস্বরকে দমানো যাবে না।'

বিশেষ সম্মান পাওয়ার খবর শুনে অরুন্ধতী জানান, হ্যারল্ড পিন্টার জীবিত থাকলে বর্তমান সময়ে গোটা বিশ্বে যা যা হচ্ছে তা নিজের দক্ষতায় ফুটিয়ে তুলতেন। আমরা সেই কাজটাই করছি। ভবিষ্যতেও করে যাব।

সম্প্রতি অরুন্ধতি রায়ের বিরুদ্ধে UAPA ধারায় মামলা দায়েরের অনুমতি দেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর ভি কে সাক্সেনা। ২০১০ সালে দিল্লিতে 'আজাদি - দ্য অনলি ওয়ে' শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রেখেছিলেন সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়। তাঁর বক্তব্যে উঠে এসেছিল কাশ্মীর প্রসঙ্গ। তাঁর বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

অরুন্ধতী রায়
Inequality: ভারতে বাড়ছে বৈষম্য - দেশের প্রায় ৯০ শতাংশ বিলিওনেয়ারই উচ্চবর্ণের - রিপোর্ট
অরুন্ধতী রায়
UN Women: ১১৩ দেশে কখনোই মহিলা রাষ্ট্রপ্রধান ছিল না - রাষ্ট্রসংঘের সমীক্ষায় স্পষ্ট লিঙ্গ বৈষম্য

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in