জরুরি অবস্থার প্রথম বিরোধিতা করেন জেলবন্দী সাংবাদিক

কুলদীপ নায়ারের ৯৭ তম জন্মদিনে শ্রদ্ধার্ঘ্য
জরুরি অবস্থার প্রথম বিরোধিতা করেন জেলবন্দী সাংবাদিক
কুলদীপ নায়ারফাইল ছবি সংগৃহীত

সাংবাদিকতায় তাঁর নির্ভীক কলমের জন্য পরিচিত কুলদীপ নায়ার বিশ্বাসী ছিলেন বামপন্থী রাজনৈতিক মতাদর্শে। জরুরি অবস্হার সময় ইন্দিরা গান্ধীর কঠোর সমালোচনা করে জেলেও যেতে হয় তাঁকে। তিনিই ছিলেন দেশের প্রথম সাংবাদিক যাকে জরুরি অবস্থার বিরোধিতা করার জন্য বন্দী করা হয়েছিলো। প্রথিতযশা সেই মানুষটির আজ ৯৭ তম জন্মদিন। যিনি ১৪ ই আগস্ট ১৯২৩-এ বর্তমান পাকিস্তানের শিয়ালকোটে জন্ম নেন।

ক্ষুরধার লেখনী, স্পষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষণের জন্য তাঁর খ্যাতি ছিলো। যদিও তিনি তাঁর কর্মজীবনে সাংবাদিকতা, লেখালিখির পাশাপাশি বহু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৯০ সালে গ্রেটব্রিটেনে তিনি ছিলেন ভারত সরকার নিযুক্ত হাইকমিশনার। ১৯৯৭ সালের আগস্ট মাসে তাঁকে রাজ্যসভার সাংসদ হিসেবে মনোনীত করা হয়।

এক উর্দু সংবাদপত্রের প্রেস রিপোর্টার হয়ে জীবন শুরু করে সাংবাদিকতা সূত্রে যুক্ত হয়েছিলেন দ্য স্টেট্সম্যান, ডেকান হেরাল্ড, দ্য ডেইলি স্টার, দ্য সানডে গার্ডিয়ান, দ্য নিউজ ইত্যাদি আরো বিভিন্ন সংবাদপত্রের সঙ্গে। পরবর্তী সময়ে সংবাদসংস্থা ইউএনআই-এর প্রধান নিযুক্ত হন। মুক্ত সংবাদ মাধ্যমের দাবিতে তাঁর লড়াইয়ের জন্য ২০০৩ সালে তিনি 'অ্যাস্টর' পুরস্কার পান।

তিনি ছিলেন ব্রিটিশ ও স্বাধীন ভারতের ৮০ বছরের ইতিহাসের প্রত্যক্ষ সাক্ষী। শান্তি, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের দাবিতে সবসময়ই সচল ছিল তাঁর কলম। শেষ জীবনে ভারতের জেলে বন্দী পাকিস্তানি নাগরিক ও পাকিস্তানের জেলে বন্দী ভারতীয় নাগরিকদের মুক্তির আন্দোলনে প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িয়ে ছিলেন তিনি।

কুলদীপ নায়ারের বিখ্যাত লেখা "বিটুইন দ্য লাইনস" অনুবাদ হয়েছিল অনেকগুলো ভাষায়। ২০১৮ সালের ২৩ শে আগস্ট ৯৫ বছর বয়সে দিল্লিতে তাঁর মৃত্যু হয় ।

আমাদের সার্ভেতে যোগ দিন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in