West Bengal: ডিসেম্বর ও জানুয়ারিতে দু'দফায় রাজ্যে পুরভোটের সম্ভাবনা

সরকারি সূত্র অনুসারে প্রথমে তিন মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এবং এরপর ১১২টি পুরসভার নির্বাচন সেরে ফেলতে চাইছে রাজ্য। গত ১৮ মাস আগে বিভিন্ন পুরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও এখনও নির্বাচন হয়নি।
West Bengal: ডিসেম্বর ও জানুয়ারিতে দু'দফায় রাজ্যে পুরভোটের সম্ভাবনা
রাজ্য নির্বাচন কমিশন ফাইল ছবি সংগৃহীত

আগামী ডিসেম্বর এবং জানুয়ারিতে হতে পারে রাজ্যের পুরসভা নির্বাচন। সরকারি সূত্র অনুসারে প্রথমে তিন মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এবং এরপর ১১২টি পুরসভার নির্বাচন সেরে ফেলতে চাইছে রাজ্য। গত ১৮ মাস আগে বিভিন্ন পুরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও এখনও নির্বাচন হয়নি।

রাজ্য নির্বাচন কমিশন আগেই রাজ্য সরকারের কাছে এই বিষয়ে অনুমতি চেয়েছে। আগামী ডিসেম্বরে কলকাতা, হাওড়া এবং বিধাননগর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে নির্বাচন করাতে চেয়েছে কমিশন। এই বিষয়ে অনুমতি পাওয়া গেলেই নির্বাচনী বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে। সম্ভবত কালীপুজোর পর এই বিজ্ঞপ্তি জারি হতে চলেছে। তিন মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের নির্বাচন পর্ব মিটে গেলে জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে বাকি পুরসভাগুলির নির্বাচন।

সূত্র অনুসারে রাজ্য নির্বাচন কমিশন আগামী ১৯ ডিসেম্বর এই তিন মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে নির্বাচন চাইছে। সেক্ষেত্রে ভোট গণনা হবে ২২ ডিসেম্বর। রাজ্য সরকারও আগামী ২৫ ডিসেম্বরের আগে নির্বাচন সেরে ফেলতে ইচ্ছুক।

রাজ্যের অর্থ দপ্তরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন এই বিষয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশন আর্থিক অনুমোদন চেয়েছে। কমিশনের পক্ষ থেকে ১১২টি পুরসভা নির্বাচনের জন্য ১৮৫ কোটি টাকা দাবি করা হয়েছে। পাঁচ বছর আগে পুর নির্বাচনে যে টাকা খরচ হয়েছিলো এই পরিমাণ তার প্রায় দ্বিগুণ। বর্তমানে অর্থ দপ্তর এই বিষয়ে পর্যালোচনা করছে এবং তা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে।

রাজ্য নির্বাচন কমিশনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ১১২ পুরসভার জন্য ২২ হাজার বুথ হবে এবং কোভিডের কারণে বেশি সংখ্যক নির্বাচন কর্মী এবং পুলিশের প্রয়োজন। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলা হয়েছে। আমরা নির্বাচন করতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত।

পুজোর আগে মুখ্যমন্ত্রী ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে চার বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের পরেই রাজ্যের পুরসভাগুলির বকেয়া নির্বাচন সেরে ফেলা হবে।

- with Agency inputs

রাজ্য নির্বাচন কমিশন
West Bengal: ডিসেম্বরেই রাজ্যে পুরভোট? ইঙ্গিত রাজ্য নির্বাচন কমিশনের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in