Uttar Pradesh: লখিমপুর খেরির ঘটনায় বিজেপির ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে - সমীক্ষা

নির্বাচন হবে এমন ৫ টি রাজ্যের ৬৯০টিবিধানসভা আসন জুড়ে এবিপি-সি-ভোটার-আইএএনএস সমীক্ষাটি হয় ৪ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবরের মধ্যে। এই সমীক্ষায় ৯৮,১২১জন মানুষের মতামত নেওয়া হয়।
Uttar Pradesh: লখিমপুর খেরির ঘটনায় বিজেপির ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে - সমীক্ষা
অখিলেশ যাদব ও মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথফাইল ছবি সংগৃহীত

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন বিজেপি এবং সমাজবাদী পার্টির (এসপি) মধ্যে দ্বিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পরিণত হতে চলেছে। এবিপি-সিভোটার-আইএএনএস স্টেট অফ স্টেটস ২০২১ সমীক্ষার সাম্প্রতিক আভাস অনুসারে এই তথ্য সামনে উঠে এসেছে।

সি-ভোটার- এর প্রতিষ্ঠাতা যশবন্ত দেশমুখ বলেছেন, লখিমপুর খেরির ঘটনা প্রতিযোগিতাকে খুবই একপেশে করে তুলেছে এবং মেরুকরণ ঘটিয়েছে।

দেশমুখ বলেন, বিজেপি-বিরোধী ভোট এসপির দিকে একত্রিত হচ্ছে এবং নির্বাচনের আগে বিএসপি এবং কংগ্রেসের মতো অন্যান্য দলের বৃদ্ধির সুযোগ এখন সীমিত।

দেশমুখ বলেন, এসপি বিশাল উৎসাহ পাবে যদি তাদের নেতা অখিলেশ যাদব মাঠে নামেন এবং এমনকি তার বাবা মুলায়ম সিং যাদব এক শতাংশও সক্রিয় হন। নাহলে অন্যদিকে ভোটের ভাগের গাণিতিক ব্যবধান বিজেপির পক্ষে যাবে।

নির্বাচন হবে এমন ৫ টি রাজ্যের ৬৯০টিবিধানসভা আসন জুড়ে এবিপি-সি-ভোটার-আইএএনএস সমীক্ষাটি হয় ৪ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবরের মধ্যে। এই সমীক্ষায় ৯৮,১২১জন মানুষের মতামত নেওয়া হয়।

৬৯.৬ শতাংশ মানুষ বলেছেন লখিমপুরের মতো ঘটনার কারণে উত্তরপ্রদেশ সরকারের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত হচ্ছে।

৫৯.৬ শতাংশ মানুষ বলেছেন, লখিমপুরের ঘটনা উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির জন্য ক্ষতিকর প্রমাণিত হবে।

৬৩.২ শতাংশ মানুষ বলেছেন, গত কয়েকদিন ধরে রাজ্যে আইন -শৃঙ্খলা পরিস্থিতির কারণে ইউপি সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।

সমীক্ষা অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নেতৃত্বাধীন বিজেপি ২৪৫ টি আসন নিয়ে রাজ্যে পুনরায় ক্ষমতায় আসতে চলেছে, এরপর ১৩৪ টি আসন নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকতে পারে এসপি। বিজেপি আগের নির্বাচনের তুলনায় কমপক্ষে ৮০ টি আসন হারাতে পারে। অন্যদিকে এসপি ৮৬টি আসন বেশি পেতে পারে।

- with IANS input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in