Punjab: সভাপতির পদ থেকে আচমকা ইস্তফা নভজ্যোত সিং সিধুর - সঙ্কটে পাঞ্জাব কংগ্রেস

পাঞ্জাব কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেন নভজ্যোত সিং সিধু। মঙ্গলবার আচমকাই তিনি তাঁর পদ থেকে ইস্তফা দেন। তাঁর ইস্তফাপত্র ট্যুইট করেছেন সিধু।
Punjab: সভাপতির পদ থেকে আচমকা ইস্তফা নভজ্যোত সিং সিধুর - সঙ্কটে পাঞ্জাব কংগ্রেস
নভজ্যোত সিং সিধু ফাইল ছবি দ্য ট্রিবিউন-এর সৌজন্যে

পাঞ্জাব কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেন নভজ্যোত সিং সিধু। মঙ্গলবার আচমকাই তিনি তাঁর পদ থেকে ইস্তফা দেন। তাঁর ইস্তফাপত্র ট্যুইট করেছেন সিধু।

গত কয়েকদিন ধরেই টানাপোড়েন চলছে পাঞ্জাব কংগ্রেসে। নভজ্যোত সিং সিধু রাজ্য কংগ্রেসের দায়িত্ব পাবার পরেই মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিতে বাধ্য হন ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন সিধু ঘনিষ্ঠ চরণজিত সিং চান্নি। তারপরেই আচমকা ইস্তফা সিধুর।

এদিনের ইস্তফাপত্রে সিধু জানিয়েছেন, একটি মানুষের চরিত্রের পতন ঘটে সমঝোতার দৃষ্টিকোণ থেকে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে। আমি পাঞ্জাবের ভবিষ্যত নিয়ে, পাঞ্জাবের উন্নয়ন নিয়ে কোনো সমঝোতা করতে পারবো না। তাই আমি কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিচ্ছি। আমি কংগ্রেসের জন্য কাজ করে যাব।

পাঞ্জাবে নভজ্যোত সিং সিধুর ইস্তফায় বিস্মিত হয়েছেন কংগ্রেস কর্মীরা। ঘটনার আকস্মিকতায় কংগ্রেস নেতৃত্ব স্তম্ভিত। মূলত রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সিদ্ধান্তেই তাঁকে সভাপতির পদ দেওয়া হয়েছিলো।

রাজনৈতিক মহলের মতে রাজ্য মন্ত্রীসভা গঠনের সময় বেশ কিছু নাম নিয়ে আপত্তি ছিলো সিধুর। যদিও সেই আপত্তি গ্রাহ্য করা হয়নি। যা মেনে নিতে পারেননি সিধু। তবে নির্বাচনের মুখে নেতৃত্বের এই ডামাডোলে কংগ্রেস যে পাঞ্জাবে অসুবিধেয় পড়বে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.