ছবি প্রতীকী
ছবি প্রতীকী গ্রাফিক্স - আকাশ

Lok Sabha Polls 24: বিকেল ৫টা পর্যন্ত রাজ্যের ৩ কেন্দ্রে ভোটের হার ৭৭.৫৭ শতাংশ

People's Reporter: দেশের অষ্টাদশ সাধারণ নির্বাচনের কাউন্টডাউন শুরু। সাত দফার এই নির্বাচনের প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হবে ১৯ এপ্রিল সকাল ৭টায়। ভোটগ্রহণ চলবে সন্ধ্যে ৬টা পর্যন্ত।

বিকেল ৫টা পর্যন্ত রাজ্যে ভোটের হার ৭৭.৫৭ শতাংশ

অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম পর্যায়ের ভোটে রাজ্যে সবথেকে বেশি ভোট পড়লো কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের নাটাবাড়িতে। বিকেল ৫টা পর্যন্ত ওই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৮২.১০ শতাংশ। সবথেকে কম ভোট পড়েছে আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রের মাদারিহাটে। সেখানে ভোট পড়েছে ৬৮.৬৭ শতাংশ।

এদিন বিকেল ৫টা পর্যন্ত কোচবিহার কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৭৭.৭৩ শতাংশ। আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে ৭৫.৩৩ শতাংশ এবং জলপাইগুড়ি কেন্দ্রে ৭৯.৩৩ শতাংশ।

রাজ্যের তিন লোকসভা আসনে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৭৭.৫৭ শতাংশ।

দেশের ১০২ কেন্দ্রে বিকেল ৩টে পর্যন্ত ভোটের হার প্রায় ৫০ শতাংশ

বিকাল ৩টে পর্যন্ত দেশের ১০২ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৪৯.৭৮ শতাংশ। এদিনই অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে সকাল ৭টা থেকে।

যার মধ্যে তামিলনাড়ুতে ৫১ শতাংশ ভোট পড়েছে, রাজস্থানে ৪১.৫ শতাংশ, উত্তর প্রদেশে ৪৭.৪ শতাংশ এবং মধ্যপ্রদেশে ৫৩.৪ শতাংশ ভোট পড়েছে৷ সাধারণ নির্বাচনের পাশাপাশি রাজ্য নির্বাচনের জন্য, সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশে যথাক্রমে ৫২.৭ এবং ৫৪.৩ শতাংশ ভোট পড়েছে৷

বিকেল ৩টে পর্যন্ত জলপাইগুড়িতে ভোট ৬৭ শতাংশের বেশি

পশ্চিমবঙ্গের তিন আসনের মধ্যে দুপুর ৩টে পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে জলপাইগুড়ি কেন্দ্রে। এই আসনে ভোটদানের হার ৬৭.২৮ শতাংশ।

আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৬৬.২৩ শতাংশ এবং এবং কোচবিহার কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৬৫.৫৪ শতাংশ।

শুক্রবার প্রথম দফার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে ভোট হচ্ছে ৩ আসনে। আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহার - এই তিন কেন্দ্রে দুপুর ৩টে পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৬৬.৩৪ শতাংশ।

বিধানসভার নিরিখে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সব চেয়ে বেশি ভোট পড়েছে জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে।

দুপুর ১টা পর্যন্ত রাজ্যের তিন আসনে ৫০ শতাংশের বেশি ভোট

প্রথম দফায় পশ্চিমবঙ্গের তিন আসনে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৫০.৯৬ শতাংশ।

এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে। এই আসনে ভোটদানের হার ৫১.৫৮ শতাংশ।

কোচবিহার কেন্দ্রে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৫০.৬৯ শতাংশ।

জলপাইগুড়িতে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৫০.৬৫ শতাংশ।

বিধানসভা কেন্দ্র হিসেবে জলপাইগুড়ির মেখলিগঞ্জে এখনও পর্যন্ত সবথেকে কম ভোট পড়েছে। দুপুর ১টা পর্যন্ত সেখানে ভোটদানের হার ৪২.৭ শতাংশ। অন্যদিকে ময়নাগুড়ি কেন্দ্রে ভোট পড়েছে সবথেকে বেশি। সেখানে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৫৪.৬৮ শতাংশ।

ত্রিপুরায় বিভিন্ন জায়গা থেকে কারচুপি ও হিংসার অভিযোগ 

ত্রিপুরায় প্রথম দফার নির্বাচনে আজ ভোটগ্রহণ হচ্ছে ত্রিপুরা পশ্চিম কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রের বেশ কয়েকটি জায়গা থেকে ব্যাপক কারচুপির এবং হিংসার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।  

বিজেপির মদতপুষ্ট বাহিনী বিরোধী পোলিং এজেন্টদের উপর হামলা চালিয়ে ভোটকে প্রহসনে পরিণত করেছে বলে অভিযোগ তুলেছে বাম ও কংগ্রেস। অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিষ্ক্রিয়তারও। উদয়পুর, বিলোনিয়া, সোনামুড়া-সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে বিরোধী পোলিং এজেন্টদের উপর হামলার খবর পাওয়া গেছে।

সিপিআই(এম) সমর্থিত ত্রিপুরা পশ্চিমের কংগ্রেস প্রার্থী আশিস কুমার সাহার জানিয়েছেন, রামনগর বিধানসভা কেন্দ্রের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ।

তিনি আরও বলেন, 'রিটার্নিং অফিসার বিশাল কুমার ও এসপি কিরণ কুমারের সঙ্গে কথা বলেছি এবং ঘটনাস্থলের পরিস্থিতি সম্পর্কে তাদের অবহিত করেছি’।

যদিও প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি আশিস কুমার সাহার অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে বিজেপি।

এখনও পর্যন্ত কমিশনে অভিযোগ ৩৮৩টি, নিষ্পত্তি ১৯৫টির

প্রথম দফার ভোটে রাজ্যে অভিযোগের পাহাড় জমছে কমিশনে। এখনও পর্যন্ত কোচবিহারে অভিযোগ জমা পড়েছে ১৭২টি, আলিপুরদুয়ারে অভিযোগ জমা পড়েছে ১৩৫টি এবং জলপাইগুড়িতে অভিযোগ জমা পড়েছে ৭৬টি। নির্বাচনের কমিশনের কাছে এখনও পর্যন্ত মোট ৩৮৩টি অভিযোগ জমা পড়েছে বলে জানা গেছে।

কমিশন সূত্র অনুসারে, এর মধ্যে ১৯৫টি অভিযোগের নিষ্পত্তি ইতমধ্যেই করা হয়েছে। দলগত ভাবে বিজেপি এবং তৃণমূলের পক্ষ থেকে ৯ টি করে এবং সিপিআইএম-এর পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জলপাইগুড়িতে বুথ কার্যালয়ে বসেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাম কর্মীর মৃত্যু

শুক্রবার ভোট চলাকালীন বুথ কার্যালয়ে বসে হৃদরোগে প্রয়াত হলেন সিপিআই(এম)’র সদস্য প্রদীপ দাস।

জলপাইগুড়ির লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত ধুপগুড়ির পূর্ব মাগুরমারির সিপিআইএম কর্মী ছিলেন তিনি। এদিন ভোট চলাকালীন তিনি বিবেকানন্দ  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথ কার্যালয়ে বসে ছিলেন। সেখানেই আচমকা হৃদরোগে আক্রান্ত হন প্রদীপ দাস এবং তাঁর মৃত্যু হয়।

১১টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের তিন আসনে সামগ্রিক ভাবে ভোট পড়েছে ৩২ শতাংশ 

বেলা ১১টা পর্যন্ত রাজ্যের তিন আসনে ভোটদানের হার ৩২ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে আলিপুরদুয়ারে, ৩৫.২০ শতাংশ। কোচবিহারে ভোট পড়েছে ৩৩.৬৩ শতাংশ। জলপাইগুড়ি আসনে ভোট পড়েছে ৩১.৯৪ শতাংশ। 

কোচবিহারে চোখ ফাটল ভোটারের, অভিযুক্ত তৃণমূল

কোচবিহারের শীতলকুচিতে ভোট দিতে এসে চোখ ফাটল ভোটারের। তৃণমূলের উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বারে ভোট দিলেন রামদেব

চেন্নাইয়ে ভোট দিলেন অভিনেতা কমল হাসান, রজনীকান্ত, ধনুষরা 

সকাল ১০টা পর্যন্ত রাজ্যে ১৫১টি অভিযোগ জমা পড়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছে

ছত্তিসগড়ের বস্তারে বিস্ফোরণ, আহত ১

প্রথম দফার ভোটের দিনে ছত্তিসগড়ে মাওবাদী প্রভাবিত বস্তার অঞ্চলে বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে। বিজাপুরের গালগাম এলাকায় এক ভোট কেন্দ্র থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে একটি আন্ডার বারেল গ্রেনেড লঞ্চার (ইউবিজিএল) সেল বিস্ফোরণ হয়। এক নিরাপত্তা কর্মী গুরুতর আহত হন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

সকাল ৯টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের তিন আসনে ভোট পড়েছে গড়ে ১৫.৯ শতাংশ 

সকাল ৯টা পর্যন্ত রাজ্যের তিন আসনে ভোটদানের হার ১৫.০৯ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে আলিপুরদুয়ারে, ১৫.৯১ শতাংশ। কোচবিহারে ভোট পড়েছে ১৫.২৬ শতাংশ। জলপাইগুড়ি আসনে ভোট পড়েছে ১৪.১৩ শতাংশ। 

তামিলনাড়ুর ৩৯ আসনেই জিতবে ইন্ডিয়া মঞ্চ - আশাবাদী প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম

শুক্রবার সকাল সকাল ভোট দিলেন দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম। তামিলনাড়ুর শিবগঙ্গার একটি বুথে ভোট দেবার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিয়ে খুশি।" তিনি আরও বলেন, আমি আশাবাদী যে তামিলনাড়ুর ৩৯টি আসনই জিতবে ইন্ডিয়া জোট।”

রেকর্ড হারে ভোটদানের আর্জি জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

দেশবাসীর কাছে প্রথম দফায় রেকর্ড হারে ভোটদানের আর্জি জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এক্স হ্যান্ডেলে (পূর্বতন ট্যুইটার) এদিন তিনি লিখেছেন, “প্রত্যেকটি ভোটের গুরুত্ব আছে, প্রতিটি কন্ঠস্বরই গুরুত্বপূর্ণ।”

প্রথম দফায় মহারাষ্ট্রের ৫ কেন্দ্রে কংগ্রেস - বিজেপির লড়াই

অষ্টাদশ লোকসভার প্রথম দফার নির্বাচনে মহারাষ্ট্রের ৫ কেন্দ্রে লড়াই হচ্ছে বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে।

নাগপুরে সরাসরি লড়াই হচ্ছে প্রবীণ বিজেপি নেতা নীতিন গড়করি ও কংগ্রেস প্রার্থী বিকাশ ঠাকরের মধ্যে।

চন্দ্রপুরে, বিজেপি প্রার্থী এবং মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী সুধীর মুনগান্টিওয়ারের সঙ্গে লড়াই হচ্ছে কংগ্রেস মনোনীত প্রার্থী প্রতিভা ধানোরকরের মধ্যে।

ভান্ডারা-গোন্দিয়ায়, বিজেপি বিদায়ী সাংসদ সুনীল মেন্ডেকে প্রার্থী করেছে, যিনি কংগ্রেস প্রার্থী ডঃ প্রশান্ত পাটোলের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

গড়চিরোলি-চিমুর (এসটি) আসনে বিজেপির দুই বারের লোকসভা সাংসদ অশোক নেতার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে কংগ্রেস মনোনীত ডক্টর নামদেব কিরসানের।

রামটেকে কংগ্রেসের শ্যামকুমার বারওয়ে এবং একনাথ শিন্ডের নেতৃত্বাধীন শিবসেনার প্রার্থী রাজু পারওয়ের মধ্যে লড়াই হচ্ছে।

রাজ্যের ৩ কেন্দ্রেই মূল লড়াই তৃণমূল, বিজেপি ও বামেদের মধ্যে

রাজ্যের যে ৩ লোকসভা কেন্দ্রে আজ ভোটগ্রহণ চলছে সেই ৩ কেন্দ্রেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বীর সংখ্যা ৩।

কোচবিহারে বিদায়ী বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের সঙ্গে লড়াই তৃণমূল প্রার্থী জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া এবং ফরওয়ার্ড ব্লকের নীতীশচন্দ্র রায়-এর। গত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের কাছ থেকে এই আসন ছিনিয়ে নেয় বিজেপি। বাম কংগ্রেস আসন সমঝোতা সূত্র না মেনে এই কেন্দ্রে প্রার্থী দিয়েছে কংগ্রেসও।

জলপাইগুড়ি কেন্দ্রে এ বার বিজেপি প্রার্থী বিদায়ী সাংসদ জয়ন্তকুমার রায়। তৃণমূলের প্রার্থী ধূপগুড়ি বিধানসভার বিধায়ক নির্মলচন্দ্র রায়। সিপিআইএম প্রার্থী তরুণ দেবরাজ বর্মণ। ২০১৪ সালে এই আসনে জয়ী হয়েছিল তৃণমূল। ২০১৯ সালে আসনটি তৃণমূলের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে বিজেপি। তরুণ প্রার্থী দেবরাজ বর্মণকে ঘিরে এই কেন্দ্র ফিরে পাবার আশায় বাম শিবির।

আলিপুরদুয়ারে বিদায়ী সাংসদ তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জন বার্লাকে সরিয়ে উত্তরবঙ্গের চা বাগান অধ্যুষিত এই কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী করেছে মাদারিহাট বিধানসভার বিধায়ক মনোজ টিগ্গাকে। তৃণমূল প্রার্থী দলের রাজ্যসভার সাংসদ প্রকাশ চিক বরাইকক। এই কেন্দ্রে আরএসপি প্রার্থী মিলি ওঁরাও।

রাজ্যের তিন কেন্দ্র - এক নজরে

কেন্দ্র - কোচবিহার

মোট বুথ ২০৪৩টি

মোট ভোটার - ১৯ লক্ষ ৬৬ হাজার ৮৯৩ জন।

পুরুষ ভোটার - ১০ লক্ষ ১৪ হাজার ৮৬৪ জন।

মহিলা ভোটার - ৯ লক্ষ ৫১ হাজার ৯৯৬ জন।

কেন্দ্র - আলিপুরদুয়ার

মোট বুথ - ১৮৬৭টি

মোট ভোটার - ১৭ লক্ষ ৭৩ হাজার ২৫২ জন

পুরুষ ভোটার - ৮ লক্ষ ৮৯ হাজার ১৯ জন

মহিলা ভোটার - ৮ লক্ষ ৮৪ হাজার ৮৭১ জন

কেন্দ্র - জলপাইগুড়ি

মোট বুথ - ১৯০৪টি।

মোট ভোটার - ১৮ লক্ষ ৮৫ হাজার ৯৬৩ জন।

পুরুষ ভোটার - ৯ লক্ষ ৫৮ হাজার ৬১১

মহিলা ভোটার - ৯ লক্ষ ২৭ হাজার ৩৩৯।

রাজ্যের ৩ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু

নির্ধারিত সময়েই শুরু হল অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম পর্বের ভোটগ্রহণ। শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার এবং জলপাইগুড়ি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

রাজ্যের ৩ কেন্দ্র ছাড়াও এদিন দেশের মোট ১০২টি কেন্দ্রে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ।

২১ রাজ্যের ১০২ আসনে প্রথম দফার ভোটগ্রহণ শুক্রবার

শুক্রবার ১৯ এপ্রিল শুরু হচ্ছে অষ্টাদশ লোকসভার প্রথম দফার ভোটগ্রহণ। এদিন মোট ১০২ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

পশ্চিমবঙ্গের ৩ আসন সহ ভোটগ্রহণ হবে অরুণাচল প্রদেশের ২, অসমের ৫, বিহারের ৪, ছত্তিশগড়়ের ১, মহারাষ্ট্রের ৫, মণিপুরের ১, মেঘালয়ের ২, মিজোরামের ১, নাগাল্যান্ডের ১, রাজস্থানের ১২, সিকিমের ১, তামিলনাড়ুর ৩৯, ত্রিপুরার ১, উত্তরপ্রদেশের ৮, মধ্যপ্রদেশের ৫, উত্তরাখণ্ডের ৫, আন্দামান ও নিকোবরের ১, জম্মু ও কাশ্মীরের ১, লাক্ষাদ্বীপের ১, পুদুচেরির ১ আসনে। এছাড়াও এদিনই লোকসভার পাশাপাশি অরুণাচল প্রদেশের ৬০টি এবং সিকিমের ৩২টি বিধানসভা আসনেও ভোটগ্রহণ করা হবে।

১৯ এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গে ভোটগ্রহণ হবে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার এবং জলপাইগুড়ি আসনে।

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.