Congress: পাঞ্জাবের পর জট রাজস্থান, ছত্তিশগড়ের নেতৃত্ব নিয়েও - সংকট বাড়ছে কংগ্রেসে
অশোক গেহলট ও ভূপেশ বাঘেলফাইল ছবি, ডেকান হেরাল্ডের সৌজন্যে

Congress: পাঞ্জাবের পর জট রাজস্থান, ছত্তিশগড়ের নেতৃত্ব নিয়েও - সংকট বাড়ছে কংগ্রেসে

কংগ্রেসের পাঞ্জাব জটের পর এবার জট ঘনীভূত হতে চলেছে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে নেতৃত্বের প্রশ্নে ক্ষমতাযুদ্ধ আসন্ন।

কংগ্রেসের পাঞ্জাব জটের পর এবার জট ঘনীভূত হতে চলেছে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে নেতৃত্বের প্রশ্নে ক্ষমতাযুদ্ধ আসন্ন। একইভাবে ক্ষমতার লড়াই সামলাতে না পেরে মধ্যপ্রদেশ থেকে ক্ষমতাচ্যুত হতে হয় কংগ্রেসকে। যদিও কংগ্রেস হাইকম্যান্ড পাঞ্জাবে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে অমরিন্দর সিংকে সরিয়ে বিদ্রোহীদের কড়া বার্তা দিতে চেয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

এর আগে রাজস্থানে সরাসরি শচীন পাইলটের বিদ্রোহের মুখে পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। সে যাত্রায় কোনোমতে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া গেলেও সেই বিতর্ক এখনও মেটেনি। উলটে পাইলট শিবিরের অভিযোগ, বিদ্রোহের সময় যে যে প্রতিশ্রুতি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছিলো তা এখনও পালন করা হয়নি।

অন্যদিকে ছত্তিশগড়ে বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়ক টি এস সিং দেও মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসতে ইচ্ছুক। এর আগে সরকার গঠনের সময় কংগ্রেস নেতৃত্বের পক্ষ থেকে ভাগাভাগি করে মুখ্যমন্ত্রীত্ব পদ সামলানোর যে সূত্র দেওয়া হয়েছিলো তাও মানা হয়নি বলে তাঁর দাবি। ফলে খুব একটা স্বস্তিতে নেই ভূপেশ বাঘেল-ও।

গত বৃহস্পতিবার কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের পক্ষ থেকে রাজস্থানের দায়িত্বপ্রাপ্ত অজয় মাকেন জানিয়েছেন, রাজস্থানে মন্ত্রীসভা সম্প্রসারণ আসন্ন। একই সঙ্গে দলে বেশ কিছু সাংগঠনিক পরিবর্তন আনা হবে। তিনি আরও জানিয়েছেন, অশোক গেহলট অসুস্থ এবং এখনও তাঁকে ঘর থেকেই কাজ করতে হচ্ছে। তিনি সুস্থ হলেই মন্ত্রীসভা সম্প্রসারণ করা হবে। যদিও শচীন পাইলট প্রসঙ্গে তিনি জানান, রাজ্যস্তরের সমস্ত বিষয়ে আমাদের আলোচনা হয়েছে। কিন্তু এআইসিসি-তে আলোচিত বিষয়ে আমি সেভাবে কিছু বলতে পারবো না।

একইভাবে ছত্তিশগড়ে মুখ্যমন্ত্রীত্ব না পেয়ে ক্ষুব্ধ সিংদেও শিবির। তাঁদের দাবি, কংগ্রেস হাইকম্যান্ড এই বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করুক এবং পূর্বঘোষিত রোটেশানাল তত্ব প্রয়োগ করে ভূপেশ বাঘেলকে সরিয়ে তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী করা হোক। কারণ ভূপেশ বাঘেলের মুখ্যমন্ত্রীত্বের আড়াই বছর শেষ হয়ে গেছে। যদিও সিংদেও শিবিরের দাবি মেনে কংগ্রেসের উচ্চ নেতৃত্ব এখনও পর্যন্ত এই ধরণের কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। ফলে উত্তাপ বাড়ছে ছত্তিশগড়ের রাজনৈতিক মহলে। অন্যদিকে ইতিমধ্যেই ভূপেশ বাঘেল তাঁর সমর্থক ৫০জন বিধায়ক নিয়ে দিল্লিতে ঘুরে এসেছেন এবং মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে তিনি নারাজ।

- with inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.