White Fungus: দেশে ব্ল‍্যাকের থেকেও মারাত্মক ফাঙ্গাসের উপস্থিতিতে আতঙ্ক চিকিৎসকমহলে

এই ছত্রাক হানা দিলে মাথাব্যথা, শ্বাসকষ্ট, পা ফুলে যাওয়া, যৌনাঙ্গে জ্বালাভাব, ত্বকে চুলকানির মতো উপসর্গ দেখা যায়। আবার করোনার উপসর্গও দেখা গিয়েছে। সিটিস্ক্যান করলে এই ছত্রাকের অবস্থান টের পাওয়া যায়।
White Fungus: দেশে ব্ল‍্যাকের থেকেও মারাত্মক ফাঙ্গাসের উপস্থিতিতে আতঙ্ক চিকিৎসকমহলে
প্রতীকী ছবি

গোটা দেশ করোনা মহামারীর দাপটে কার্যত বিপর্যস্ত। এরই মাঝে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারী ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। এবার দেশের মানুষ ও চিকিৎসক মহলের আতঙ্ক বাড়িয়ে দেশে হাজির হোয়াইট ফাঙ্গাস। এর পোষাকি নাম হোয়াইট ক‍্যানলিডা। ব্ল্যাকের থেকেও নাকি হোয়াইট ফাঙ্গাস আরও বেশি ভয়াবহ। এমনটাই জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। প্রথম থেকেই সতর্ক হয়ে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে বলে মনে করছেন তাঁরা। নয়ত সমস্যা বাড়বে বৈ কমবে না। সম্প্রতি বিহারে মোট চারজনের শরীরে হোয়াইট ফাঙ্গাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। যদিও কোনো চিকিৎসকের দাবি, হোয়াইট ফাঙ্গাসের থেকে ব্ল‍্যাক ফাঙ্গাসই বেশি ভয়ানক।

কারা আক্রান্ত হচ্ছেন?

বিশেষজ্ঞদের মতে, কোভিড রোগীর দেহে এই ছত্রাক ধরা পড়লেও যাঁদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা কম, তাঁরাই মূলত এই ছত্রাকে আক্রান্ত হচ্ছেন। ডায়াবেটিক, ক্যানসার রোগী, কিডনির সমস্যা, অ্যাজমা রোগী যাঁদের দীর্ঘদিন ধরে স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধ বা ইনজেকশন নিতে হয়, তাঁদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি এবং তাঁরাই আক্রান্ত হচ্ছেন বলা যায়। কোভিড আক্রান্ত হয়ে আইসিইউতে বা মারাত্মক শ্বাসকষ্ট নিয়ে যে রোগীরা চিকিত্‍সাধীন, তাঁদের প্রয়োজনে স্টেরয়েড দিতেই হয়। তখন এই মারণ ছত্রাকে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। ৬ বছরের নীচে শিশু ও অন্তঃসত্ত্বাদের মধ্যেও দেখা যাচ্ছে এই ছত্রাকের লক্ষণ।

কী কী উপসর্গ দেখা দেয়?

চিকিৎসকদের কাছ থেকে জানা যাচ্ছে, এই ছত্রাক হানা দিলে, মাথাব্যথা, শ্বাসকষ্ট, পা ফুলে যাওয়া, যৌনাঙ্গে জ্বালাভাব, ত্বকে চুলকানি, র‍্যাশ বের হওয়ার মতো উপসর্গ দেখা যায়। আবার করোনার উপসর্গও দেখা গিয়েছে। আরটিপিসিআর টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও যে এই রোগ সেরে গিয়েছে, তা নয়। তবে এক্স-রে, সিটিস্ক্যান করলে এই ছত্রাকের অবস্থান টের পাওয়া যায়।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সঙ্গে পার্থক্য কোথায়?

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকোরমাইসিসের সংক্রমণের ফলে সাইনাস, মস্তিষ্কে ও ফুসফুসে সমস্যা দেখা যায়। মাটি, বৃক্ষ, জৈব ও রাসায়নিক সার, পচে যাওয়া ফল, সবজি থেকে এই ছত্রাক ছড়িয়ে পড়ে।

অন্যদিকে বিশেষজ্ঞদের মতে, ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের থেকেও আরও মারাত্মক এই হোয়াইট ছত্রাক। বিরল ছত্রাক সম্পর্কে বিস্তারিত কোনও তথ্য প্রকাশিত না হলেও জানা যাচ্ছে, ফুসফুস তো বটেই, কিডনি, লিভার, পেট, মস্তিষ্ক, ত্বক, নখ, চোখ ও গোপনাঙ্গে ক্ষতি সৃষ্টি করে।

প্রসঙ্গত, চিকিত্‍সক মহলের আশঙ্কা, সম্প্রতি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের থেকেও ভয়াল রূপ নিতে পারে এই হোয়াইট ফাঙ্গাস। তবে এই ছত্রাক নিয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in