Tamilnadu: কোভিডে মৃত সরকারি চিকিৎসক - এখনও ক্ষতিপূরণ মেলেনি পরিজনদের

ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের তামিলনাড়ু শাখার হিসাব অনুযায়ী ওই রাজ্যে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ১০০ চিকিৎসক। ওই চিকিৎসকদের পরিবার পরিজন এখনও সরকার ঘোষিত ক্ষতিপূরণ পাননি।
Tamilnadu: কোভিডে মৃত সরকারি চিকিৎসক - এখনও ক্ষতিপূরণ মেলেনি পরিজনদের
ছবি প্রতীকীছবি সংগৃহীত

গোটা বিশ্ব জুড়ে কোভিডের আক্রমণে মৃতদের মধ্যে আছেন অনেক স্বাস্থ্যকর্মীও।ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের তামিলনাড়ু শাখার হিসাব অনুযায়ী ওই রাজ্যে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ১০০ চিকিৎসক। ওই চিকিৎসকদের পরিবার পরিজন এখনও সরকার ঘোষিত ক্ষতিপূরণ পাননি।

ত্রিচি সরকারি হাসপাতালে কর্মরত ফ্রন্টলাইন চিকিৎসক ৩৯বছর বয়সী ডাঃ মনিরমণ তিন মাস আগে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান। তাঁর স্ত্রী নিঝাল মোঝি ভবিষ্যতের চিন্তায় আকুল।

মোঝি জানিয়েছেন তিনি বর্তমানে সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন।পাশাপাশি দুই শিশু সন্তানের লেখাপড়ার খরচ জোগাতেও পারছেন না।

সংবাদ সংস্থাকে নিঝাল মোঝি জানিয়েছেন তাঁরা ব্যাঙ্ক থেকে গৃহ ঋণ নিয়েছিলেন।ব্যাঙ্ক রোজ ঋণ শোধ করার জন্য তাগাদা দিচ্ছে। সরকার ঘোষিত এককালীন ক্ষতিপূরণের টাকাটা পেলে ব্যাঙ্ক ঋণ মিটিয়ে বাকি টাকাটা অন্তত সন্তানদের লেখাপড়ার জন্য ব্যবহার করতে পারতেন।

পূর্বতন এআইএডিএমকে সরকার ফ্রন্টলাইন চিকিৎসকদের জন্য এককালীন ৫০লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছিলেন। যে ক্ষতিপূরণ এখনও পর্যন্ত মাত্র দুটি পরিবার পেয়েছে। তাও ২৫লক্ষ টাকা করে।

ডিএমকে সরকার ক্ষমতায় আসার পরে মৃত ফ্রন্টলাইন চিকিৎসকদের জন্য ২৫লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করলেও এখনও কেউ তা পায়নি।

আইএমএ-র দাবি ক্ষতিপূরণের পরিমাণ আগের ঘোষণা মতো ৫০লক্ষ টাকাই করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মা সুব্রহ্মনিয়াম জানিয়েছেন স্বাস্থ্য দফতরকে এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। খুব শীঘ্রই টাকা দিয়ে দেওয়া হবে।

মৃত চিকিৎসক কল্যাণরমন এবং সুগুমারের পরিবার ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়েছে। আই এম এ এবং সরকারি চিকিৎসকদের লিগাল কোঅর্ডিনেশন কমিটি অবিলম্বে সকলকে ক্ষতি পূরণের টাকা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে।

(Except for the headline, this story has not been edited by People's Reporter and is translated and published from a syndicated feed.)

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in