ভয়াবহ বায়ুদূষণ, মানুষের জীবন বাঁচাতে এবছরও দিল্লিতে দীপাবলীর সময় বাজিতে নিষেধাজ্ঞা

গত বছর দেরীতে নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ব‍্যবসায়ীদের অনেক ক্ষতি হয়েছিল। তাই এই বছর আগে থেকেই জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।
ভয়াবহ বায়ুদূষণ, মানুষের জীবন বাঁচাতে এবছরও দিল্লিতে দীপাবলীর সময় বাজিতে নিষেধাজ্ঞা
প্রতীকী ছবি

গত বছরের মতো এই বছরও দীপাবলির সময় বাজি সংরক্ষণ, বিক্রি এবং ব‍্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দিল্লি সরকার। জাতীয় রাজধানীতে বিপজ্জনক বায়ুদূষণের মাত্রার কথা চিন্তা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকার।

বুধবার ট‍্যুইটারে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, "গত তিন বছর ধরে দিপাবলীর সময় দিল্লিতে দূষণের বিপজ্জনক মাত্রার কথা বিবেচনা করে, গত বছরের মতো এই বছরও সমস্ত ধরণের বাজি সংরক্ষণ, বিক্রি এবং ব‍্যবহারের ওপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে। যাতে মানুষের জীবন বাঁচানো যায়।"

গত বছর দেরীতে নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ব‍্যবসায়ীদের অনেক ক্ষতি হয়েছিল। তাই এই বছর আগে থেকেই জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ট‍্যুইটারে তিনি লেখেন, "গত বছর ব‍্যবসায়ীরা পটকা মজুদ করে নেওয়ার পর, দূষণের ভয়াবহতা বিবেচনা করে অনেক দেরিতে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছিলেন ব‍্যবসায়ীরা‌। সকল ব‍্যবসায়ীদের কাছে আবেদন করছি, এই বছর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা পরিপ্রেক্ষিতে কোনো প্রকার বাজি সংরক্ষণ করবেন না।"

জাতীয় রাজধানীতে বাতাসের মান 'গুরুতর', নিরাপদ মানের থেকে ছয়গুণ খারাপ। কিছু জায়গায় এর থেকেও খারাপ অবস্থা। চলতি বছরের মার্চ মাসে বিশ্বের সবথেকে দূষিত রাজধানীর তকমা পেয়েছে দিল্লি। ২০১৮ সালে বাতাসের মান স্বাভাবিকের থেকে ১২ গুণ খারাপ ছিল।

ন‍্যাশনাল গ্রীণ ট্রাইব্যুনালের তরফ থেকেও গত বছর ৭ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত জাতীয় রাজধানী এবং তার আশেপাশের এলাকায় বাজির ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in