COVID-19: দেশে একদিনে আক্রান্ত প্রায় ৩৬ হাজার, ভয়াবহ অবস্থা মহারাষ্ট্রে

শেষ এক সপ্তাহ ধরে দেশে যেখানে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজারের আশেপাশে ছিল আজ তা বেড়ে ৩৫ হাজারের গন্ডি ছাড়ালো
COVID-19: দেশে একদিনে আক্রান্ত প্রায় ৩৬ হাজার, ভয়াবহ অবস্থা মহারাষ্ট্রে
ফাইল ছবি

১৮ মার্চ, মুম্বাই- শেষ এক সপ্তাহ ধরে দেশে যেখানে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজারের আশেপাশে ছিল আজ তা বেড়ে ৩৫ হাজারের গন্ডি ছাড়ালো। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ হাজার ৮৭১ জন, গত চার মাসে যা সর্বোচ্চ। এই নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ১৪ লক্ষ ৭৪ হাজার ৬০৫। বুধবার সরকারের তরফ সতর্কতা জারি করা বলা হয়েছে ১ মার্চ থেকে ১৫ মার্চের মধ্যে দেশের ১৬টি রাজ‍্যের ৭০টি জেলায় ১৫০ শতাংশেরও বেশি অ‍্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

পরিস্থিতি ক্রমশ উদ্বেগজনক হয়ে ওঠায় গতকালই দেশের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। করোনার "দ্বিতীয় ঢেউ" রুখতে কন্টেন্টমেন্ট জোনগুলি চিহ্নিত করে সেখানে কঠোর বিধিনিষেধ প্রয়োগের প্রয়োজনীয়তার কথা বৈঠকে উল্লেখ করেছিলেন তিনি। শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৭২ জনের। এখনও পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৫৯ হাজার ২১৬ জনের। ২৪ ঘন্টায় দেশে সক্রিয় কেসের সংখ্যা বেড়েছে ১৭ হাজার ৯৫৮। দেশে এই মুহূর্তে সক্রিয় কেস ২ লক্ষ ৫২ হাজার ৩৬৪।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সবথেকে বেশি প্রভাব ফেলেছে মহারাষ্ট্রে, যা সামলাতে আপতত হিমসিম খাচ্ছে প্রশাসন। ২৪ ঘন্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ হাজার ১৭৯, গত ১৭ সেপ্টেম্বরের পর থেকে সর্বোচ্চ দৈনিক সংক্রমণ। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৮৪ জনের। রাজ‍্যে মোট আক্রান্ত ২৩ লক্ষ ৭০ হাজার ৫০৭, এর মধ্যে সক্রিয় কেসের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫৪ হাজার ৩৬। করোনার কারণে রাজ‍্যে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫৩ হাজার ৮০ জনের। দেশের দৈনিক সংক্রমণের ৬০ শতাংশ এবং দৈনিক মৃত্যুর ৪৫.৪ শতাংশ মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা।

সুরক্ষা বিধি না মানার জন্য বুধবার রাতেই মুম্বাইয়ের একটি রেস্তোরাঁয় তালা ঝুলিয়েছে মহারাষ্ট্র প্রশাসন। ২৪৫ জনকে মাস্ক ছাড়া ওই রেস্তোরাঁ থেকে আটক করে পুলিশ। পরে জরিমানা দিলে ছাড়া হয় তাঁদের। দৈনিক সংক্রমণের হারে মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে কেরল, পাঞ্জাব, কর্ণাটক এবং গুজরাট। শেষ ২৪ ঘন্টায় এই চার রাজ‍্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন যথাক্রমে ২,০৯৮, ২,০১৩, ১,২৭৫, ১,১২২ জন। গুজরাটে সংক্রমণ রুখতে আজ থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে লোকাল বাস পরিষেবা। কর্ণাটকের উদুপি জেলার মণিপাল ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির ক‍্যাম্পাসকে কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ৫৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে সেখানে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in