কর্নাটকের কোভিড আক্রান্ত রেসিডেন্ট চিকিৎসকদের মিলছে না সরকারি সাহায্য

কোভিড রোগী এলে তাদের চিকিৎসা করতে যাওয়ার জন্য যে পর্যাপ্ত সুরক্ষার প্রয়োজন, তা রেসিডেন্ট ডাক্তারদের দেওয়া হচ্ছে না। কর্নাটক অ্যাসোসিয়েশন অফ রেসিডেন্ট ডক্টরস (কার্ড)-এর তরফে এমনই অভিযোগ করা হয়েছে।
কর্নাটকের কোভিড আক্রান্ত রেসিডেন্ট চিকিৎসকদের মিলছে না সরকারি সাহায্য
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

কোভিড রোগী এলে তাদের চিকিৎসা করতে যাওয়ার জন্য যে পর্যাপ্ত সুরক্ষার প্রয়োজন, তা রেসিডেন্ট ডাক্তারদের দেওয়া হচ্ছে না। কর্নাটক অ্যাসোসিয়েশন অফ রেসিডেন্ট ডক্টরস (কার্ড)-এর তরফে এমনই অভিযোগ করা হয়েছে। রাজ্যের তরফে কোনও রেসিডেন্ট ডাক্তারই নিজেদের সুরক্ষা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ।

কার্ডের প্রেসিডেন্ট ড. দয়ানন্দ সাগর জানিয়েছেন, গত বছর থেকে এখনও পর্যন্ত প্রায় হাজারের বেশি চিকিৎসক কোভিড পজিটিভ হযেছেন। তবুও সরকারের তরফে চিকিৎসকদের স্বার্থে কোনও সুরক্ষা ব্যবস্থা করা হয়নি। এর ফলে রাজ্যের সরকারি হাসপাতালের রেসিডেন্ট চিকিৎসকদের মানসিক অবস্থা খুবই খারাপ। কার্ডের তথ্য অনুসারে, রাজ্যের সরকারি ও বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে মোট ৬ হাজার চিকিৎসক এখন কোভিড রোগীদের চিকিৎসা করছেন। যার মধ্যে ২ হাজার চিকিৎসক শুধুমাত্র বেঙ্গালুরুর।

চিকিৎসকরা কোভিড পজিটিভ হলে, তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার কোনও ব্যবস্থা নেই। এর ফলে গত ৬ মাস ধরে চিকিৎসকদের আত্মীয়পরিজনরাও সংক্রমিত হচ্ছেন একসঙ্গে থাকার কারণে। আর তাঁদের চিকিৎসার জন্য সেই নিজেদের পকেট থেকেই টাকা খরচ করতে হচ্ছে চিকিৎসকদের। ড. সাগর দাবি করেছেন, অবিলম্বে এইসব সামনের সারির কোভিড যোদ্ধাদের জন্য আলাদা বিছানার ব্যবস্থা করা হোক সরকারের তরফে।

এই মর্মে অ্যাসেসিয়েশনের তরফে মেডিক্যাল এডুকেশন ডিপার্টমেন্টের প্রিন্সিপ্যাল সেক্রেটারিকে কোভিড-রিস্ক ভাতা দেওয়ার আবেদনও করা হয়েছে লিখিতভাবে। এই ভাতা বাবদ বেশ কিছু হাসপাতালের রেসিডেন্ট চিকিৎসকদের ২০হাজার টাকা করে দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে। এছাড়াও একইসঙ্গে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও কোভিড পরিষেবায় থাকা চিকিৎসকদের বেতন ৯০ হঅজার টাকা পর্যন্ত করার আবেদনও করা হয়েছে চিঠিতে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in