COVID-19: শেষ তিনমাসে সর্বনিম্ন দৈনিক সংক্রমণ আজ

দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে রয়েছে কেরালা। দৈনিক মৃত্যুর গ্রাফও নিম্নমুখী। দু'মাস পর করোনায় দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা দেড় হাজারের নীচে নামলো।
COVID-19: শেষ তিনমাসে সর্বনিম্ন দৈনিক সংক্রমণ আজ
ফাইল ছবি

শেষ তিনমাসে সর্বনিম্ন দৈনিক সংক্রমণ আজ। ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৩ হাজার মানুষ। দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে রয়েছে কেরালা। দৈনিক মৃত্যুর গ্রাফও নিম্নমুখী। দু'মাস পর করোনায় দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা দেড় হাজারের নীচে নামলো। সোমবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৫৩ হাজার ২৫৬ জন, গতকাল আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫৮ হাজার মানুষ।

আজকের পরিসংখ্যান নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ কোটি ৯৯ লক্ষ ৩৫ হাজার ২২১। ২৪ ঘন্টায় দেশে মারা গেছেন ১ হাজার ৪২২ জন, গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ১ হাজার ৫৭৬। এখনও পর্যন্ত দেশে কোভিডে মোট মৃত্যু হয়েছে ৩ লক্ষ ৮৮ হাজার ১৩৫ জনের। এই মুহূর্তে দেশে মোট সক্রিয় কেস ৭ লক্ষ ২ হাজার ৮৮৭, যা গতকালের তুলনায় ২৬ হাজার কম। একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৭৮ হাজার রোগী, গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ৮৭ হাজার। মোট সুস্থ ২ কোটি ৮৮ লক্ষ ৪৪ হাজার ১৯৯।

২৪ ঘন্টায় সবথেকে বেশি আক্রান্ত ধরা পড়েছে কেরলে। একদিনে সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ৬৪৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১১২ জনের। সেখানে সক্রিয় কেসের সংখ্যা ১.০৬ লক্ষ। তামিলনাড়ুতে একদিনে ৭ হাজার ৮১৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৮২ জনের। রাজ‍্যে সক্রিয় কেস ৬৯ হাজার। কর্ণাটকে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫১৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১২০ জনের। এখানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১.২৬ লক্ষ।

মহারাষ্ট্রে শেষ কয়েকদিনে দৈনিক সংক্রমণ কমলেও মৃত্যুর সংখ্যা এখনও বেলাগাম। ২৪ ঘন্টায় সেখানে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৩৬১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬০৫ জনের। দেশের মধ্যে সর্বাধিক সক্রিয় রোগী এখানেই, ১.৩৫ লক্ষ। করোনার কারণে রাজ্যে মোট মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ১৭ হাজার ৯৭১ জনের।

এই চারটি রাজ‍্য ছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা এবং আসাম - এই চারটি রাজ্যের পরিস্থিতিও অত‍্যন্ত উদ্বেগজনক। এই চারটি রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ৫,৬৪৬, ২,১৮৪, ৩,৪৭৭ এবং ১,৭৭৫। দেশে এখনও পর্যন্ত মোট টিকাকরণ হয়েছে ২৮ কোটি ৩৬ হাজার ৮৯৮ জনের। শেষ ২৪ ঘন্টায় টিকাকরণ হয়েছে ৩০ লক্ষ ৩৯ হাজার জনের।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in