Covid-19: দেশে হানা দিল ওমিক্রনের নতুন রূপ BA.2.75 - জানালো WHO, সংক্রমণের সাথে বাড়ল মৃত্যু

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সংক্রমিত হয়েছেন ১৮ হাজার ৯৩০ জন। বুধবার সেই সংখ্যাটা ছিল ১৬ হাজার ১৫৯। দেশে এক দিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ জনের।
Covid-19: দেশে হানা দিল ওমিক্রনের নতুন রূপ BA.2.75 - জানালো WHO, সংক্রমণের সাথে বাড়ল মৃত্যু
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

দেশজুড়ে ফের ঊর্ধ্বমুখী করোনার গ্রাফ। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। এরই মাঝে ভারতে এবার হানা দিল করোনা ভাইরাস ওমিক্রনের নতুন উপরূপ BA.2.75। ঠিক এমনটাই জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)-র ডিরেক্টর জেনারেল টেড্রোস অ্যাডানম ঘেব্রেইসাস।

বুধবার তিনি একটি সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, "গত দু’সপ্তাহে বিশ্বে কোভিড সংক্রমণ প্রায় ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ইউরোপ ও আমেরিকায় BA 4 ও BA 5-এর সংক্রমণ ঘটেছে। ভারতে BA.2.75 উপরূপের হদিস পাওয়া গেছে।"

বুধবারের তুলনায় বৃহস্পতিবার সংক্রমণের হার আরও বেড়েছে। সাথে বেড়েছে মৃত্যু সংখ্যাও। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সংক্রমিত হয়েছেন ১৮ হাজার ৯৩০ জন। বুধবার সেই সংখ্যাটা ছিল ১৬ হাজার ১৫৯। দেশে এক দিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ জনের। বুধবার দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ২৮। ভারতে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ১৯ হাজার ৪৫৭। দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ লক্ষ ২৫ হাজার ৩০৫ জনের। ভারতে মোট সুস্থতার হার ৯৮.৫৩ শতাংশ।

সম্ভাব্য ওমিক্রন সাব-ভেরিয়েন্ট BA.2.75 এর উত্থানের বিষয়ে, WHO-এর প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন টুইটারে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে বলেছেন যে, করোনার এই নয়া উপরূপ BA.2.75 প্রথম পাওয়া গেছে ভারতে। তারপর তা আরও ১০টি দেশে ছড়িয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন যে, "এই উপ-ভেরিয়েন্টে স্পাইক প্রোটিনের রিসেপ্টর-বাইন্ডিং ডোমেইনে কয়েকটি মিউটেশন রয়েছে বলে মনে হচ্ছে। সুতরাং স্পষ্টতই, এটি ভাইরাসের একটি মূল অংশ যা নিজেকে মানব রিসেপ্টরের সাথে সংযুক্ত করে। এই উপ-ভেরিয়েন্টের অতিরিক্ত প্রতিরোধ ক্ষমতা ফাঁকি দেওয়ার বৈশিষ্ট্য আছে নাকি প্রকৃতপক্ষে সেটি ক্লিনিক্যালি আরও গুরুতর, আমরা তা জানি না। তাই আমাদের এটি দেখতে হবে।"

৬ জুলাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে কোভিড-১৯ মহামারী সংক্রান্ত একটি আপডেট প্রকাশিত হয়েছে। যাতে বলা আছে, ২০২২ সালের মার্চ মাসের শেষে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হ্রাস পাওয়ার পর শেষ চার সপ্তাহে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২৭ জুন থেকে ৩ জুলাইয়ের মধ্যে, ৪.৬ মিলিয়নেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছে, যা আগের সপ্তাহের মতই। আগের সপ্তাহের তুলনায় নতুন সপ্তাহে মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে ১২%, ৮১০০ টিরও বেশি মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ৩ জুলাই, ২০২২ পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৫৪৬ মিলিয়নেরও বেশি সক্রিয় করোনা আক্রান্ত এবং৬.৩ মিলিয়নেরও বেশি মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

WHO-এর রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের মধ্যে BA.4 ও BA.5-এর অনুপাত ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। BA.5 ভ্যারিয়েন্ট ৮৩টি দেশে সনাক্ত করা হয়েছে এবং BA.4 ভ্যারিয়েন্ট ৭৩টি দেশে শনাক্ত করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী BA.4 -এর সংক্রমণ বাড়ছে, কিন্তু বৃদ্ধির হার BA.5 এর মতো বেশি নয়।

WHO-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, সর্বোচ্চ সংখ্যক নতুন আক্রান্ত বাড়ার তালিকায় রয়েছে ভারত (১,১২,৪৫৬ নতুন কেস, ২১ শতাংশ বৃদ্ধি), থাইল্যান্ড (১৫,৯৫০ নতুন কেস, ৬ শতাংশ বৃদ্ধি) এবং বাংলাদেশ (১৩,৫১৬ নতুন কেস, ৫৩ শতাংশ বৃদ্ধি)।

Covid-19: দেশে হানা দিল ওমিক্রনের নতুন রূপ BA.2.75 - জানালো WHO, সংক্রমণের সাথে বাড়ল মৃত্যু
Covid-19: পুরোপুরি শেষ হয়নি কোভিড, ক্রমাগত বদলাচ্ছে রূপ - দেশে নতুন করে আক্রান্ত ১৮,৮১৯

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in