মহারাষ্ট্রের দুই জেলায় আচমকা বাড়লো করোনা সংক্রমণ, জারি বিধিনিষেধ, লকডাউন

মহারাষ্ট্রের দুই জেলায় আচমকা বাড়লো করোনা সংক্রমণ, জারি বিধিনিষেধ, লকডাউন
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

আচমকাই করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধিতে উদ্বেগ ছড়ালো মহারাষ্ট্রে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মহারাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলের দুই জেলা অমরাবতী এবং ইয়াভাতমলে সপ্তাহান্তে লকডাউন জারি করা হল। এছাড়াও মহারাষ্ট্র জুড়ে মাস্ক না পড়লে কড়া শাস্তির ঘোষণা করা হয়েছে। মহারাষ্ট্রে গতকাল প্রায় দু’মাস পরে আচমকা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৫,৪২৭।

ইয়াভাতমল জেলায় আগামী ১০ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল। অতি সম্প্রতি নির্বাচিত কিছু ক্লাসেই শুরু হয়েছিলো পড়াশুনো। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছে কোচিং ক্লাস, কলেজ। এছাড়াও সমস্ত রকমের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিয়েবাড়িতে সর্বাধিক ৫০ জন থাকতে পারবেন। কোভিড বিধি মেনে ধর্মস্থান খোলা থাকছে।

অমরাবতী জেলাতেও সপ্তাহান্তের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। প্রশাসনিক সূত্র অনুসারে শনিবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত লকডাউন জারি থাকবে। যদিও অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা লকডাউনের আওতা থেকে বাদ রাখা হয়েছে। শহরের সমস্ত হোটেল রেস্তোরাঁ আপাতত রাত ১০টার বদলে রাত ৮টায় বন্ধ করে দিতে হবে।

মহারাষ্ট্র প্রশাসনিক সূত্রের খবর অনুসারে করোনার নতুন সংক্রমণের খবর মূলত এসেছে ইয়াভাতমল, পান্ধারকাওদা এবং পুসাদ শহর থেকে। এইসব অঞ্চলে টেস্টের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। এই তিন অঞ্চলে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন রাখা হচ্ছে।

গতকালের রিপোর্ট অনুসারে অমরাবতী এবং আকোলায় সংক্রমণের সংখ্যা যথাক্রমে ৫৪২ এবং ১৫২। ইয়াভাতমলে ১৩১। এছাড়াও মুম্বাই মেট্রোপলিটন অঞ্চলে সংক্রমিত ১,৪৩২। শুক্রবার সকালে প্রকাশিত কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুসারে মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫,৪২৭ জন। অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ২,৮৪৬ এবং সুস্থ হয়েছে ২,৫৪৩ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ৩৮ জনের।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in