স্ত্রীর অনিচ্ছায় শারীরিক সম্পর্ক ধর্ষণ নয়, ছত্তিশগড় হাইকোর্টের রায়ে বিরক্ত তাপসী পান্নু

ছত্তিশগড় হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, বৈবাহিক সম্পর্কে স্ত্রীর ইচ্ছের বিরুদ্ধে স্বামীর বলপূর্বক শারীরিক সংযোগকে ‘ধর্ষণ’ বলে আখ্যা দেওয়া যায় না।
স্ত্রীর অনিচ্ছায় শারীরিক সম্পর্ক ধর্ষণ নয়, ছত্তিশগড় হাইকোর্টের রায়ে বিরক্ত তাপসী পান্নু
তাপসী পান্নুছবি - টুইটার

বিয়ের পর যদি স্ত্রীর ইচ্ছের বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্ক চান স্বামী, সেটা ধর্ষণ বলে গণ্য হবে না। ছত্তিশগড় হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে এবার সরব হলেন অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। স্ত্রীর অনিচ্ছায় স্বামীর শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টার ঘটনা নতুন কিছু নয়। অনেকেই অনিচ্ছা সত্ত্বেও মেনে নেন। সমাজের বিরুদ্ধে গিয়ে মুখ ফুটে কিছু নিজেদের মনের কথা জানতে পারেন না। তাই 'বৈবাহিক ধর্ষণ’-এর শিকার হওয়া মেয়েদের সংখ্যা নেহাৎ কম নয়। কিন্তু তৃতীয় বিশ্বে তাঁদের জন্য কোনও আইন নেই।

ছত্তিশগড় হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, বৈবাহিক সম্পর্কে স্ত্রীর ইচ্ছের বিরুদ্ধে স্বামীর বলপূর্বক শারীরিক সংযোগকে ‘ধর্ষণ’ বলে আখ্যা দেওয়া যায় না। এই রায়ের পর তাপসী দৃঢ় কণ্ঠে প্রতিবাদ জানালেন। ওই রায়ের খবরটি পোস্ট করে টুইটারে তিনি লিখেছেন, 'ব্যস, এতদিন এটাই শোনা বাকি ছিল আর কী!' তাঁর টুইটের পর থেকেই নেটদুনিয়ায় প্রতিবাদে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন অনেকেই। তাঁকে সমর্থনও করেছেন নেটাগরিকরা।

তাপসীর সঙ্গে গলা মিলিয়েছেন সোনা মহাপাত্রও। বিরক্তি নিয়ে গায়িকা জানালেন, আদালতের এই রায় জেনে অসুস্থ বোধ করছেন তিনি। তাই কোনও কিছু লিখতেও ইচ্ছে করছে না।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in