'তান্ডব' ছবি 'ব্যান' করার দাবীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়, থানায় অভিযোগ দায়ের বিজেপি নেতার

ওটিটি প্ল‍্যার্টফর্মে 'তান্ডব' রিলিজ হওয়ার পর থেকেই হিন্দু অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগ তুলে এই ছবির সমালোচনা করেছে নেটিজেনদের একাংশ। এই তালিকায় রয়েছেন বিজেপি নেতৃত্বরাও।
'তান্ডব' ছবি 'ব্যান' করার দাবীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়, থানায় অভিযোগ দায়ের বিজেপি নেতার
তান্ডব ছবির পোষ্টারছবি সংগৃহীত

সইফ আলি খান, ডিম্পল কাপাডিয়া, সুনীল গ্রোভার অভিনীত 'তান্ডব' ছবিতে "হিন্দু সম্প্রদায়ের দেবদেবীদের অবমাননা" করা হয়েছে। এই অভিযোগ তুলে ছবিটি ‘ব‍্যান’ করার দাবিতে আসরে নামলো বিজেপি। ইতিমধ্যেই ছবিটির নির্মাতা, অভিনেতা এবং পরিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন মহারাষ্ট্রের বিজেপি বিধায়ক রাম কদম। নিজেই ট‍্যুইটারে একথা জানিয়েছেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, সিনেমাতে হিন্দু দেবদেবীদের অবমাননা করা "অভ‍্যাসে" পরিণত হয়েছে।

ছবিটির একটি দৃশ‍্যের কথা উল্লেখ করেছেন রাম কদম যেখানে অভিনেতা মোহম্মদ জিশান আইয়ুব শিব সেজেছেন। বিজেপি বিধায়কের অভিযোগ, এই দৃশ্যে ভগবান শিব ও রামকে নিয়ে মজা করা হয়েছে। তাঁর দাবি, ছবির ওই অংশটি মুছে দেওয়া হোক এবং জিশান আইয়ুব ও ছবির পরিচালক আলি আব্বাস জাফর প্রকাশ‍্যে ক্ষমা চান। যতক্ষণ না তা করা হচ্ছে ততক্ষণ এই ছবি বয়কট করার ডাক দিয়েছেন তিনি। তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের কাছে তাঁর আবেদন, আমাজন প্রাইম ও নেটফ্লিক্সের মতো ওটিটি প্ল‍্যার্টফর্মে প্রচারিত বিষয় পর্যালোচনার জন্য সেন্সর বোর্ড গঠন করা হোক।

শুক্রবার ওটিটি প্ল‍্যার্টফর্মে 'তান্ডব' রিলিজ হওয়ার পর থেকেই হিন্দু অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগ তুলে এই ছবির সমালোচনা করেছে নেটিজেনদের একাংশ। এই তালিকায় রয়েছেন বিজেপি নেতৃত্বরাও। গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লি হিংসার সময় সংবাদ শিরোনামে আসা বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র শনিবার ট‍্যুইটারে লেখেন, "আজকের দিনটিও শেষ হয়ে আসছে... এখনও অনলাইনে এই ওয়েব সিরিজটি আছে এবং আমাদের ধর্মের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়াচ্ছে। এবং আমাদের ভগবানকে হিরো বানিয়ে মজা করা হচ্ছে... এটা এখনও চলছে। এখনই তান্ডব ব‍্যান করা হোক।"

এই ছবি বন্ধ করার দাবিতে প্রকাশ জাভড়েকরকে চিঠি দিয়েছেন নর্থ ইস্ট মুম্বাইয়ের বিজেপি সাংসদ মনোজ কোটাক। বোম্বে হাইকোর্টের আইনজীবী আশুতোষ দুবে আইনি নোটিস জারি করেছেন আমাজন প্রাইম ও ছবির পরিচালকের বিরুদ্ধে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in