Sonu Nigam: যার যে ভাষায় ইচ্ছে কথা বলুন - হিন্দি বিতর্কে মত সোনু নিগমের

সোনু বলেন, ভারতের জাতীয় ভাষা হিন্দি নয়, ভারতের কোন জাতীয় ভাষা নেই। চলতি ভাষাগুলি সবই কাজের ভাষা, আর ইংরাজি দেশীয় ভাষা না হলেও সারা বিশ্বের ভাষা হিসেবে স্থান পেয়েছে ইংরাজি।
Sonu Nigam: যার যে ভাষায় ইচ্ছে কথা বলুন - হিন্দি বিতর্কে মত সোনু নিগমের
সোনু নিগমফাইল চিত্র - সংগৃহীত

‘ছাড়ুন ভাই, যার যে ভাষায় ইচ্ছে কথা বলুন। পাঞ্জাবী লোক পাঞ্জাবী ভাষায় কথা বলুন, তামিলনাডুর লোক তামিলে, আর যদি কেউ ইংরাজিতে স্বচ্ছন্দ হন তাহলে সেই ভাষাতেই কথা বলুন’ – রাষ্ট্রভাষা বিতর্কে এভাবেই মুখ খুললেন ৩২টি আলাদা আলাদা ভাষায় গান গাওয়া ভারতের প্রথম সারির গায়ক সোনু নিগম

'হিন্দি ভারতের রাষ্ট্রভাষা' - সম্প্রতি এই দাবি করেছিলেন অজয় দেবগণ। বলিউড অভিনেতার এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন দক্ষিণী অভিনেতারা। বিশেষ করে কিচ্চা সুদীপ। এই দুই অভিনেতার ট্যুইট-পাল্টা ট্যুইট ঘিরে বেশ কিছুদিন সরগরম ছিল সোশ্যাল মিডিয়া।

যদিও এ বিবাদ নতুন নয় তবুও তারকাদের নিজেদের মাতৃভাষায় ট্যুইটারে করা পোস্ট, একে অপরকে ট্যাগ ইত্যাদির পর ফের নতুন করে ভাষা নিয়ে বিবাদ শুরু হয়েছে। কোনটা কার ভাষা? কে কোন ভাষায় কার সাথে কোথা বলবে? কার মাতৃভাষা কী? ভারতের জাতীয় ভাষাই বা কী? – এ নিয়ে শুরু হয়েছে প্রবল আলোচনা ও সমালোচনা। রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা তাঁদের মতামত রেখেছেন ইতিপূর্বে।

এবার এ প্রসঙ্গে মুখ খুললেন গায়ক সোনু নিগম। মুম্বাইয়ের এক অনুষ্ঠানে এই বিষয়ে সরব হয়েছেন তিনি। সোনু বলেন, ভারতের জাতীয় ভাষা হিন্দি নয়। ভারতের কোনো জাতীয় ভাষা নেই। চলতি ভাষাগুলি সবই কাজের ভাষা, আর ইংরাজি দেশীয় ভাষা না হলেও সারা বিশ্বের ভাষা হিসেবে স্থান পেয়েছে ইংরাজি। ফলে চাপিয়ে দেওয়া হিন্দির দিন শেষ।

সোনু আরও বলেন, তামিল বিশ্বের প্রাচীন ভাষাগুলোর মধ্যে অন্যতম। হিন্দি ভাষাও যথেষ্ট গ্রাহ্য সারা দেশজুড়ে। এই ভাষায় কথা বলেন অনেক মানুষ। কিন্তু তা কখনও অন্য ভাষার অস্তিত্বকে অস্বীকার করতে পারে না। সেটা বেআইনি। তাঁর প্রশ্ন, কেনো এই ধরনের প্রশ্ন তুলে দেশের মধ্যে ফাটল তৈরি করা হচ্ছে? আমাদের প্রতিবেশী দেশে তো এরকম হচ্ছে না।

উল্লেখ্য, ভারতের অধিকাংশ মানুষ হিন্দি ভাষায় কথা বললেও এই দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ বিভিন্ন ভাষায় কথা বলেন। সব মিলিয়ে এ দেশের চলতি ভাষা প্রায় ২০ টি। কাজের ভাষা মূলত ইংরাজি আর সরকারী নিয়মানুযায়ী, যেকোনো সরকারী কাজ সেখানকার স্থানীয় বা মাতৃভাষায় করা যেতে পারে।

সুদীপ আর অজয়ের মধ্যে বাগবিতণ্ডার কেন্দ্রে ছিল যে দুটি ভাষা তা হল – হিন্দি আর তামিল। অজয়ের পোস্ট হিন্দিতে আর সুদীপের পোস্ট স্বাভাবিকভাবেই তামিলে। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে অজয়কে নিশানায় রেখে সরব হলেন সোনু নিগম।

সোনু নিগম
‘হিন্দি রাষ্ট্রভাষা’ - ট্যুইট করে দাবি বলিউড স্টার অজয় দেবগনের, পাল্টা কন্নড় তারকার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.