২রা মে বিশ্ব “রগড়ানি” দিবস ঘোষিত হোক, নাম না করে দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ পরমব্রতর

‘নিজেদের মতে নিজেদের গান’ রচনা করে গেয়ে দিলীপ ঘোষের রোষানলে পড়েছিলেন শিল্পীরা
২রা মে বিশ্ব “রগড়ানি” দিবস ঘোষিত হোক, নাম না করে দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ পরমব্রতর
ফাইল ছবি

শিল্পীদের অপমান করেছেন তিনি। রাজনীতিতে শিল্পীরা এলে তাঁদের রগড়ে দেবেন বলেছিলেন। বিধানসভা নির্বাচন চলাকালীন তাঁর এই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়েছিল শিল্পীসমাজ। সেই রগড়ে দেওয়ার বার্তা বুমেরাং হয়ে শিল্পীদের কাছ থেকে পেলেন দিলীপ ঘোষ। ২রা মে রবিবার বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হয়। বিপুল সংখ্যক ভোটে জিতে ফের ক্ষমতায় ফেরে তৃণমূল। কিন্তু লক্ষ্য পূরণের জন্য তিন অঙ্কের সংখ্যার ধারেকাছেও পৌঁছতে পারেনি বিজেপি। তারপরই রাজ্য বিজেপির সভাপতিকে কটাক্ষ করে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্য, 'আজ তাহলে বিশ্ব রগড়ানি দিবস ঘোষিত হোক!'

বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ প্রায়ই বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে থাকেন। শিল্পীদের নতুন গান ‘নিজেদের মতে নিজেদের গান’ রচনা করে গেয়ে তাঁর রোষানলে পড়েছিলেন শিল্পীরা। ফ্যাসিস্ট-তন্ত্রের বিরুদ্ধে গান বেঁধে গেরুয়া শিবিরের কটাক্ষের শিকার হয়েছিলেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, ঋদ্ধি সেন-সহ আরও অনেকে। সেই প্রেক্ষিতেই দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, 'শিল্পীদের বলছি আপনারা গান গান, নাচুন। ওটা আপনাদের শোভা পায়। রাজনীতিটা আমাদের করতে দিন। নাহলে রগড়ে দেব। আর শিল্পীরা জানেন, আমি কীভাবে রগড়াই।'

তার প্রেক্ষিতে পরমব্রতর বিদ্রুপ বার্তা, 'আজ বিশ্ব রগড়ানি দিবস ঘোষিত হোক।' পাশাপাশি অভিনেতা কুর্নিশ জানালেন বঙ্গবাসীকে- 'বেঁচে থাকুক রাজ্যবাসী। দীর্ঘজীবী হোক বাংলার মানব সমাজ। মানুষ আবারও প্রমাণ করে দিল, স্বাধীনতা কতখানি গুরুত্বপূর্ণ।' পরমব্রতর এই বিদ্রুপ মন্তব্যে সায় দিয়ে অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি বলছেন, 'হ্যাঁ হোক হোক!'

এদিকে, 'ঘোষ ব্রাদার্স’ (দিলীপ ঘোষ ও রুদ্রনীল ঘোষ)-কে রগড়ে দিলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। নিজেরই পরিচালিত ‘ভিঞ্চিদা’কে অনুঘটক বানালেন। সেই ছবির একটি দৃশ্য তুলে ধরেছেন। এই দৃশ্যে রুদ্রনীলের সংলাপ, ‘অন্যকে রগড়াতে গিয়ে নিজেই কখন রগড়ে যাবেন! আপনি ধরতে পারবেন না’। পাশে কান্নার ইমোজি। তাঁর পোস্টে বিধ্বস্ত রুদ্রনীল ঘোষ বিজেপি রাজ্য সভাপতিকে আপ্রাণ বোঝানোর চেষ্টা করছেন, তিনি যা করেছেন ঠিক করেননি! ছবি অনুযায়ী তাতে চটে লাল দিলীপ ঘোষ।

সেখানে পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, ‘দু’জনে দু’জনকে রগড়ে দিল’? সৃজিত অবশ্য সঙ্গে লিখেছেন, ‘জানি, চারিদিকে মহামারির জন্য কঠিন সময় চলছে। কিন্তু এক জন সাধারণ শিল্পী হিসেবে এটা শেয়ার না করে পারলাম না’।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in