Lakshadweep: 'Bio-Weapon' মন্তব্যের জেরে চিত্র পরিচালকের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ - FIR দায়ের

লাক্ষাদ্বীপে কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রশাসক প্রফুল্ল প‍্যাটেলের ভূমিকার সমালোচনা করায় এক সমাজকর্মী তথা ফিল্মমেকার আয়েশা সুলতানের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা ও ঘৃণ‍্য মন্তব্যের মামলা দায়ের করা হলো।‌
Lakshadweep: 'Bio-Weapon' মন্তব্যের জেরে চিত্র পরিচালকের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ - FIR দায়ের
আয়েশা সুলতানফাইল ছবি, আয়েশা সুলতানের ফেসবুক থেকে সংগৃহীত

লাক্ষাদ্বীপে কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রশাসক প্রফুল্ল প‍্যাটেলের ভূমিকার সমালোচনা করায় এক সমাজকর্মী তথা ফিল্মমেকার আয়েশা সুলতানের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা ও ঘৃণ‍্য মন্তব্যের মামলা দায়ের করা হলো।‌ লাক্ষাদ্বীপের বিজেপি সভাপতি সি আব্দুল কাদের হাজির অভিযোগের ভিত্তিতে কাভারত্তি পুলিশ স্টেশনে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এক আঞ্চলিক নিউজ চ্যানেলের বিতর্কে অংশ নিয়ে লাক্ষাদ্বীপে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য প্রফুল্ল প‍্যাটেলের সিদ্ধান্তকে দায়ী করেন আয়েশা সুলতানা। তাঁর অভিযোগ, কেন্দ্র লাক্ষাদ্বীপের বিরুদ্ধে একটি "বায়ো-ওয়েপন" বা জৈব অস্ত্র ব্যবহার করেছে।

আয়েশা বলেন, "লাক্ষাদ্বীপে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা শূন্য হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু এখন প্রতিদিন ১০০ জন করে ব‍্যক্তি আক্রান্ত হচ্ছেন। আসলে কেন্দ্র এখানে একটি 'বায়ো-ওয়েপন' মোতায়েন করেছে। আমি খুব স্পষ্ট করে বলছি কেন্দ্র সরকার বায়ো ওয়েপন মোতায়েন করেছে।

আয়েশার এই মন্তব্য বিজেপি কর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। পথে নেমে প্রতিবাদও দেখিয়েছেন তাঁরা। বিজেপি সভাপতি আব্দুল খাদের হাজির অভিযোগ, আয়েশা সুলতানা "দেশদ্রোহী। তাঁর এই মন্তব্য কেন্দ্র সরকারের দেশপ্রেমী ভাবমূর্তি নষ্ট করছে।"

বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হতেই নিজের ফেসবুকে আয়েশা লেখেন, "টিভি চ্যানেলের বিতর্কে আমি বায়ো-ওয়েপন শব্দটি ব‍্যবহার করেছি। আমি মনে করি প‍্যাটেল ও তাঁর নীতি দুইই বায়ো-ওয়েপন। প‍্যাটেল এবং তাঁর আশেপাশের অনুরাগীদের দ্বারাই লাক্ষাদ্বীপে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে।... ওরা আমার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করেছে। কিন্তু আমি জোর গলায় বলছি সত‍্য জিতবেই। যেখানে আমি জন্মগ্রহণ করেছি সেই মাটির জন্য আমি আমার লড়াই চালিয়ে যাব। আমি কাউকে ভয় করি না। আমার আওয়াজ এখন থেকে আরো জোরালো হবে ক্রমশ।"

প্রসঙ্গত, প্রশাসক হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার পর লাক্ষাদ্বীপে একাধিক নিয়ম লাগু করেছেন প্রফুল্ল প‍্যাটেল। মুসলিম প্রধান দ্বীপে মদ‌ বিক্রির অনুমতি দিয়েছেন তিনি এবং গোহত্যা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছেন। দ্বীপের অধিবাসীদের জমির অধিকার কেড়ে নিয়েছেন। সমগ্র দ্বীপজুড়ে প্রশাসকের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হয়েছে। এই আন্দোলনে প্রথম থেকেই সামনের সারিতে রয়েছেন আয়েশা সুলতানা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in