মানব পাচার মামলায় দু’বছর জেল দালের মেহেন্দির

২০০৩ সালে সেপ্টেম্বর মাসে বকশীস সিং নামের এক ব্যক্তি পাতিয়ালায় দালের মেহেন্দি এবং তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
দালের মেহেন্দি
দালের মেহেন্দিফাইল ছবি

মানব পাচার মামলায় গায়ক দালের মেহেন্দির দু বছরের সাজার নির্দেশ বহাল রাখলো পাঞ্জাবের পতিয়ালার একটি আদালত। ১৯ বছরের পুরনো একটি মানব পাচার মামলায় ২০১৮ সালে তাঁকে এই সাজা দেওয়া হয়েছিল। এই সাজার নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বৃহস্পতিবার তাঁর আবেদন খারিজ করে দিল পাতিয়ালা আদালত।

সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর, আদালতের এই নির্দেশ আসার পরই দালের মেহেন্দিকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়েছে।

প্রায় দুই দশক আগে দালের মেহেন্দি এবং তাঁর ভাই শমসের মেহেন্দির বিরুদ্ধে মানব পাচারের অভিযোগ উঠেছিল। ট্রুপ রুটের মাধ্যমে বিদেশে প্রধানত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডায় প্রোগ্রাম করতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে প্রচুর লক্ষ লক্ষ টাকা তোলার অভিযোগ উঠেছিল তাদের বিরুদ্ধে। এঁদের মধ্যে অধিকাংশকেই তাঁরা নিয়ে যাননি বলে অভিযোগ।

২০০৩ সালে সেপ্টেম্বর মাসে বকশীস সিং নামের এক ব্যক্তি পাতিয়ালায় দালের মেহেন্দি এবং তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে তিনি জানান, ১৯৯৮ এবং ১৯৯৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধ অভিবাসনের জন্য ১০ জনের একটি ট্রুপ দল তৈরি করেছিল দুই ভাই। আমার কাছ থেকে ১৩ লক্ষ টাকা নিয়েছিল। আমাকে বিদেশে নিয়ে যায়নি এবং টাকাও ফেরত দেয়নি।

FIR দায়েরের এক মাস পরই দুই ভাইকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। যদিও কয়েক দিনের মধ্যেই তাঁরা জামিন পেয়ে যান। উভয়ের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির মানব পাচার এবং ষড়যন্ত্রের ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। ভারতীয় পাসপোর্ট আইনের অধীনেও অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। এই এফআইআর-এর পরে আরো ৩৫ টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে এই দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে।

২০১৭ সালে শামসের মেহেন্দি মারা যান। ২০১৮ সালে এই মামলায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত দু বছরের সাজার নির্দেশ দেয়।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in