Emergency: ইন্দিরা গান্ধীর ভূমিকায় কঙ্গনা রানাওয়াত - 'বিজেপির এজেন্ট' কটাক্ষ কংগ্রেসের

‘মণিকর্ণিকা’ ছবিতে রানী লক্ষ্মীবাই, ‘থালাইভি’ তে তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার চরিত্রে অভিনয় করার পরে কঙ্গনা রানাউতের বানানো তৃতীয় চলচ্চিত্র নিয়ে ‘ইমারজেন্সি’ নিয়ে জলঘোলা হয়েছে।
ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনা
ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনাছবি - সংগৃহীত

সদ্য মুক্তি পেয়েছে নতুন ছবি ‘ইমার্জেন্সি’র টিজার। তা নিয়ে এবার কংগ্রেসের রোষের মুখে পড়লেন ছবির অভিনেত্রী কঙ্গনা। সাতের দশকে দেশের জরুরিকালীন অবস্থা নিয়ে এই ছবি। ছবিতে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে কঙ্গনাকে।

ইন্দিরা গান্ধী যে সময়ে দেশের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, তখন অর্থাৎ ১৯৭৫ থেকে ১৯৭৭ সালের মধ্যে দেশে ঘোষিত হয়েছিল জরুরি অবস্থা। সেই সময়ের আধারেই নির্মিত হচ্ছে কঙ্গনা রানাওয়াতের ছবি ‘ইমারজেন্সি’। শুরু হয়েছে ছবির শ্যুটিং। টিজারে কঙ্গনার ‘প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী’-র লুক প্রশংসা কুড়িয়েছে নেটিজনদের।

এই ছবিতে কঙ্গনাকে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর লুকে সাজিয়েছেন অস্কার বিজয়ী মেকআপ আর্টিস্ট ডেভিড মালিনোস্কিক। টিজারটি মুক্তি পাবার অল্প কিছুক্ষনের মধ্যেই ইউটিউবে এক নম্বরে ট্রেন্ডিং হয়েছিল।

ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনাকে দেখে জোরালো প্রতিবাদ জানিয়েছে কংগ্রেস দল। মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের মিডিয়া শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট সঙ্গীতা শর্মা বলেন, কঙ্গনা এখন ‘বিজেপির এজেন্ট’। ইন্দিরা গান্ধীকে অপমান করে তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট করাই এই ছবির মূল লক্ষ্য। সঙ্গীতার আরও দাবি জানান, ‘মুক্তির আগেই ছবিটি কংগ্রেসকে দেখতে হবে’।

এই মন্তব্যের পাল্টা জবাব দেওয়া হয়েছে বিজেপির তরফে। রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র রাজপাল সিং সিসোদিয়া বলেছেন, সাতের দশকে ঘটে যাওয়া জরুরি অবস্থা দেশের গণতন্ত্রের উপর একটি কালো দাগ। আর ইন্দিরা গান্ধী সেই সময় ছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী তথা এই ঘটনার মূল কেন্দ্র। তাঁকে ‘নায়িকা’ বলে আখ্যায়িত করে বলেন এই কালো সময়ের নায়িকা ইন্দিরা গান্ধী। এখন আর চিন্তা করে লাভ নেই। সেই সময় যা হয়েছে তা ছবিতে দেখানো হবে।

তবে এই বিতর্ক বাগবিতণ্ডার মধ্যেই কঙ্গনা তাঁর ইনস্টাগ্রামে ছবির শ্যুটিং-এর একটি ভিডিও পোস্ট করে লেখেন, ইমারজেন্সি ছবিটি ইন্দিরার জীবনীচিত্র বা বায়োপিক নয়। বরং জরুরি অবস্থায় দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করেই তৈরি করা হয়েছে এই গল্পের চিত্রনাট্য।

প্রসঙ্গত, এই ছবির প্রযোজনা ও পরিচালনার ভার সামলেছেন কঙ্গনা স্বয়ং। ইতিপূর্বে ‘মণিকর্ণিকা’ চলচ্চিত্রে পৌরাণিক চরিত্র রানী লক্ষ্মীবাই এবং ‘থালাইভি’তে তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার চরিত্রে অভিনয় করার পরে কঙ্গনা রানাউতের বানানো তৃতীয় চলচ্চিত্র ‘ইমারজেন্সি’ নিয়ে জলঘোলা হয়েছে। বারবার কোন না কোন ভাবে ছবি মুক্তির আগে শিরোনামে উঠে আসেন ক্যুইনখ্যাত অভিনেত্রী। এবারও সেই ঘটনার ব্যতিক্রম হয়নি। ছবির একটি সিন প্রকাশ্যে আসার পরই তা নিয়ে মন্তব্য করেছে কংগ্রেস, পাল্টা আক্রমণ করেছে বিজেপিও। এবারে ছবির রিলিজে কী হয় সেটাই দেখার!

ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনা
১৯৪৭ সালে দেশ স্বাধীনতা পায়নি, ভিক্ষা পেয়েছিল, আসল স্বাধীনতা পেয়েছে ২০১৪ তে - কঙ্গনা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in