কন্যাদান নয়, কন্যামান - আলিয়া ভাট অভিনীত বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হিন্দুপন্থী সংস্থার

কন‍্যা মানেই কী তাঁকে দান করে দেওয়া হবে? কন‍্যা কী কোনো বস্তু? আলিয়া ভাট অভিনীত এই বিজ্ঞাপনে হিন্দুদের বিবাহ অনুষ্ঠানের রীতি 'কন‍্যাদান' নিয়ে এরকম প্রশ্ন তোলা হয়েছে।
কন্যাদান নয়, কন্যামান - আলিয়া ভাট অভিনীত বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হিন্দুপন্থী সংস্থার
বিজ্ঞাপনে আলিয়া ভাটছবি সংগৃহীত

একটি পোশাক কোম্পানির বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো নভি মুম্বাইয়ের ভাসি এলাকা। কোম্পানির একটি শোরুমের সামনে বিক্ষোভ দেখায় হিন্দু জনজাগ্রুতি সমিতির সদস্যরা। তাঁদের অভিযোগ, এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা হয়েছে। কোম্পানিকে ক্ষমা প্রার্থনার দাবি তুলেছেন তাঁরা।

বেদান্ত ফ‍্যাশনস লিমিটেডের মান‍্যবর ব্র‍্যান্ডের পোশাকের একটি বিজ্ঞাপন ঘিরে এই গন্ডগোলের সূত্রপাত। বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট অভিনীত এই বিজ্ঞাপনে হিন্দুদের বিবাহ অনুষ্ঠানের একটি রীতি 'কন‍্যাদান' নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। কন‍্যা মানেই কী তাঁকে দান করে দেওয়া হবে? কন‍্যা কী কোনো বস্তু? তাঁর কোনো মন নেই? কেন এক হাত থেকে আর এক হাতে তুলে দেওয়া হবে মেয়েদের? কেন শুধু কন‍্যাদান? বিজ্ঞাপন অনুযায়ী নিজের বিয়ের দিন কনের পোশাকে সজ্জিত আলিয়া নিজের বিয়ের আসরে বসে এগুলো ভাবছেন। পরে কন‍্যাদানের সময় দেখা যায় পাত্রের মা-বাবাও তাঁদের সন্তানকে দান করছেন। বিজ্ঞাপনের ট্যাগ লাইন ছিল কন‍্যাদান নয়, কন‍্যামান।

হিন্দু জনজাগ্রুতি সমিতির অভিযোগ, এই বিজ্ঞাপন মাধ্যমে হিন্দুদের রীতির বিরোধিতা করা হয়েছে। তাঁরা নভি মুম্বাইয়ের শোরুমের সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখায়। সমিতির মুখপাত্র ডঃ উদয় ধুরি একটি বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করেন, 'কন‍্যাদান' রীতিকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে এই বিজ্ঞাপনে,‌ যা হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে। অবিলম্বে বিজ্ঞাপনটি প্রত‍্যাহার করে কোম্পানির কাছ থেকে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনার দাবি তুলেছে সংগঠনটি। বিজ্ঞাপনটি প্রত‍্যাহার না করা পর্যন্ত এই কোম্পানিকে বয়কট করার জন্য আমজনতাকে অনুরোধ করেছেন তাঁরা।

বিজ্ঞাপনটি দেখুন -

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in