'শাহিনবাগের দাদি'কে নিয়ে ভুয়ো প্রচার, কড়া সমালোচনায় ট্যুইট মুছলেন কঙ্গনা রানাউত

'শাহিনবাগের দাদি'কে নিয়ে ভুয়ো প্রচার, কড়া সমালোচনায় ট্যুইট মুছলেন কঙ্গনা রানাউত
ছবি সংগৃহীত

ট‍্যুইটারে শাহিনবাগ খ‍্যাত দাদীর ভুয়ো ছবি শেয়ার করে নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে পড়লেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। শুধু ছবি শেয়ারই নয়, অত‍্যন্ত কুৎসিত ভাষায় ৮২ বছরের বিলকিস বানুকে আক্রমণ করেছেন কঙ্গনা বলে অভিমত নেটিজেনদের। প্রবল সমালোচনার মুখে পরে এই ট্যুইট মুছে দেন তিনি।

গত কয়েকদিন ধরে ট‍্যুইটার ও ফেসবুকে দুই বৃদ্ধার পাশাপাশি রাখা ছবি ভাইরাল হয়েছে। এঁদের মধ্যে একজন বিলকিস বানু ও অপরজন প্রায় সমবয়সী এক বৃদ্ধা, যাঁকে দেখে মনে হচ্ছে কোনো মিছিলে হাঁটছেন তিনি। ছবির ওপরে দাবি করা হয়েছে, মিছিলে দেখতে পাওয়া বৃদ্ধা বিলকিস বানু এবং টাকা নিয়ে কৃষকদের বিক্ষোভ মিছিলে ভাড়া খাটছেন তিনি।

1. Dadi at Shaheen Bagh2. Dadi as Farmer?Dadi available for hire on per day basis. Food, cloth, award and pocket money extraCONTACT : @RahulGandhi, @priyankagandhi or at @incindia office, 24, Akbar Road, New Delhi pic.twitter.com/66YfCYL5QG— Gaurav Pradhan ?? (@OfficeOfDGP) November 27, 2020

এরকমই একটি ট‍্যুইট রিট‍্যুইট করে কঙ্গনা রানাউত লেখেন, "হা হা হা ইনিই তো সেই দাদি যিনি টাইম ম্যাগাজিনে ভারতের সবচেয়ে পাওয়ারফুল মহিলা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন... এবং ১০০ টাকা দিলেই এনাকে পাওয়া যাবে। পাকিস্তানী সাংবাদিকরা বিব্রতকর উপায়ে ভারতের জন্য আন্তর্জাতিক পিআর হাইজ্যাক করেছে। আন্তর্জাতিকভাবে আমাদের হয়ে কথা বলার জন্য আমাদের নিজস্ব লোকদের দরকার।"

সত‍্য সন্ধানকারী সংস্থা অলট নিউজ এই ভাইরাল ছবির সত‍্যতা যাচাই করেছেন। বিলকিস বানুর ছবিটি চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ইকনমিক টাইমস, ইন্ডিয়া টাইমসে প্রকাশিত হয়েছিল যখন তিনি টাইম ম্যাগাজিন কর্তৃক বিশ্বের ১০০ জন প্রভাবশালী ব‍্যক্তির তালিকায় স্থান পেয়েছিলেন।

দ্বিতীয় বৃদ্ধার ছবিটি অক্টোবর মাসে চন্ডীগড়ের একাধিক সাংবাদিক পোস্ট করেছিলেন। চন্ডীগড় ট্রিবিউনের ২৭ অক্টোবরের একটি প্রতিবেদনে একটি কৃষক আন্দোলনের কথা বলা হয়েছিল। বিলকিস বানুর ছবি হিসেবে ভাইরাল হওয়া ছবিতে যেভাবে মহিলাদের হলুদ রঙের স্কার্ফ জড়ানো অবস্থায় দেখা গেছে, ট্রিবিউনের প্রকাশিত ওই কৃষক আন্দোলনের ছবিতেও মহিলাদের ওইভাবে দেখা গিয়েছে। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার নীল কমল নামের এক সাংবাদিকও এই আন্দোলনের ছবি করেছিলেন।

অলট নিউজের পক্ষ থেকে বিলকিস বানুর ছেলে মনজুর আহমেদের সাথেও কথা বলা হয়েছিল। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন হলুদ স্কার্ফ জড়ানো ওই বৃদ্ধা তাঁর মা নন।

এই ভুয়ো খবর ছড়ানোর জন্য নেট নাগরিকদের ব‍্যাপক আক্রমণের মুখে পড়েন কঙ্গনা রানাউত। কিছুক্ষণ পরে নিজের ট‍্যুইটটি মুছে দেন তিনি।

কেন্দ্রের নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষকদের বিক্ষোভ আজ চতুর্থ দিনে পড়েছে। দিল্লির সীমান্তে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন এই মুহূর্তে। দাবি না মানা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন কৃষকরা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in