'কিন্তু গল্প নয়' - গল্প নয়, ইতিহাস

'কিন্তু গল্প নয়' - গল্প নয়, ইতিহাস
কিন্তু গল্প নয় ছবির পোষ্টারছবি সংগৃহীত

গল্প মনে হতেই পারে। কিন্তু গল্প নয়। বরং গল্পের মোড়কে এ এক অন্য কাহিনী। সেলুলয়েডের ফ্রেমে বন্দী প্রায় দীর্ঘ ৭০ বছরের টানটান ইতিহাস। যে ইতিহাসের পরতে পরতে লুকিয়ে আছে লড়াই, সংগ্রাম, মানবকল্যাণের কথা। আর সেই ইতিহাসকে ফ্রেমে বন্দী করার অসাধ্য সাধন করেছেন ডাঃ পবিত্র গোস্বামী। যার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী, দেবশঙ্কর হালদার-এর মত খ্যাতিমান অভিনেতারা। শুধুমাত্র গল্পের মায়াজালে দেশবাসীকে আবিষ্ট করে রাখার এই অসময়ে ভিন্নস্বাদের এক সাহসী পরিবেশনা ‘কিন্তু গল্প নয়।’

'৪৩-এর মন্বন্তর পেরিয়ে তখন ১৯৪৬ সাল, বিশ্বযুদ্ধোত্তর দুনিয়ায় দেশে দেশে উপনিবেশবিরোধী মুক্তিসংগ্রাম তুঙ্গে, ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে সোভিয়েতের দীর্ঘস্থায়ী রক্তক্ষয়ী যুদ্ধজয়ে ম-ম করছে সমাজতান্ত্রিক শিবির, এদেশ তখন নৌবিদ্রোহ, আইএনএ ট্রায়াল নিয়ে উত্তাল।

সেই অগ্নিদিনে আরজিকর মেডিক্যাল কলেজের মেইন হোস্টেলের ৬ নম্বর ঘরে কয়েকজন মেডিক্যাল ছাত্র আন্দোলনের কর্মী চিন্তিত এরাজ্যের গরীব ছাত্রছাত্রীদের চিকিৎসার খরচ চালানো নিয়ে, চাঁদা তুলেও যে সামাল দেওয়া যাচ্ছে না !

১৯৪৭ - লালকেল্লায় ইউনিয়ন জ্যাক নামিয়ে তেরঙ্গা ওড়ানোর ঠিক তিনমাস আগে অর্থাভাবে যক্ষ্মা রোগের সঠিক চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেলেন কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য্য।

মেডিক্যাল ছাত্ররা এবার দৃঢ়চিত্ত, ছাত্রদের চিকিৎসার খরচ তুলতে কিছু একটা করতেই হবে এবার! তারা গেল তাদের স্যর ডাঃ নীহার মুন্সী, ডাঃ অরুণ সেন, ডাঃ অমিয় বোসদের কাছে - তাঁরা বললেন, সব ছাত্র সাধ্যমত চাঁদা দিক, আর অসুস্থ ছাত্ররা প্রয়োজনমত পরিষেবা পাক।

১৯৫২ - গড়ে উঠল ছাত্রছাত্রীদের স্বনির্ভর স্বাস্থ্য আন্দোলনের ভিত - স্টুডেন্টস হেলথ হোম। ডাঃ বোসের ধর্মতলার চেম্বার, ডাঃ মুন্সীর ক্রীক রো-র বাড়ী ঘুরে শেষে ডঃ ত্রিগুণা সেনের সহায়তায় মৌলালীতে।তখন রক্ত বিক্রী হ'ত। ছাত্র-যুবরা রক্ত বেচে আর স্বেচ্ছাশ্রমের ঘাম দিয়ে দোতলা বিল্ডিং বানালো।

সোভিয়েত রাশিয়ার ছাত্রলীগ পাঠালো এক্স-রে মেশিন, দাঁতের চিকিৎসার সরঞ্জাম পাঠালো সমাজতান্ত্রিক চেকোশ্লোভাকিয়া, বেলজিয়ামের ছাত্ররা সাজিয়ে দিল অপারেশন থিয়েটার, চীনের ছাত্র কাউন্সিল দিল সেদেশের টি.বি. স্যানাটোরিয়ামে ফ্রি চিকিৎসার সুবিধা। আন্তর্জাতিক ছাত্র-সংহতি পেল নতুন মাত্রা।

বিরোধী দলনেতা জ্যোতি বসু বিধানসভায় দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ বিধান রায়ের কাছে লড়ে আদায় করলেন সরকারী অর্থসাহায্য।

গত ৬৭ বছরে বাংলার কোণে কোণে লক্ষ লক্ষ ছাত্রের নামমাত্র খরচে চিকিৎসা, রোগ প্রতিরোধ আন্দোলনে সামিল করার পরিণামে ২০১২ থেকে বন্ধ হ'ল সরকারী অনুদানের সিংহভাগ!

তবুও হার মানে নি হেলথ হোম, থেমে যায়নি তার পথ চলা। অগণিত শুভানুধ্যায়ী আজো এগিয়ে নিয়ে চলেছেন হেলথ হোমকে।

আগামী ১-লা জুন কোলকাতার প্রাচী সিনেমা হলে (প্রিমিয়ার শো) ছাড়াও ঋত্বিক সদন (বহরমপুর), নবীন (মালদা), কালিকা (হাবড়া), সিনেবাজ (জলপাইগুড়ি), লোকসংস্কৃতি (বর্ধমান) হলে মুক্তি পাবে এইসব গল্প নিয়ে তৈরী পূর্ণাঙ্গ চলচ্চিত্র 'কিন্তু গল্প নয়'।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in