বলতে চাইনি, তবু বলতে হল …

বলতে চাইনি, তবু বলতে হল …
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

শৈশব কাটেনি। সময় আসেনি কিশোর দামালপনার। যৌবনের স্বপ্ন দেখানো – বেশ কিছুটা দূরের পথ।

কিন্তু এর মধ্যেই গোরক্ষপুরের হাসপাতালের আদলে আক্রান্ত শৈশব। যা প্রমাণ করে দিলো আমরা ঠিক রাস্তায় হাঁটছি। বিকল্পের সন্ধান দিতে পারবো। শুরুর সাফল্যে যে যে মৌচাকে ঢিল পড়েছে – আক্রমণ সেখান থেকে আসাই স্বাভাবিক। এসেছেও।

সাময়িক হতচকিত হলেও হাল ছাড়ার প্রশ্নই ওঠে না। নাই বা থাকুক খুঁটির কিংবা ঘুটির জোর। নাই বা থাকুক অর্থস্রোত। কী বোর্ড আছে – বিশ্বাস আছে – লড়াই জিতে নেবার। কাপুরুষের মতো মুখোশ পড়ে নয়। সামনাসামনি লড়ে।

আমাদের শিশু ওয়েবসাইট হ্যাক করে যারা প্রোগ্রামিংগুলোকে ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছিলেন, তাঁদের আরও একবার ধন্যবাদ। আমাদের জেদ আরো বাড়লো। আর ধন্যবাদ আমাদের পাঠকদের। যারা এই কদিনে অসংখ্যবার আমাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে চেয়েছেন। পাশে থেকেছেন।

আমরা একমাত্র আপনাদের কাছেই দায়বদ্ধ থাকবো বিকল্প খবর নিয়ে। তাই আবারও বলি – গুজবে নয়, খবরে থাকুন। রং এবং wrong এড়িয়ে।

আমাদের সার্ভেতে যোগ দিন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in