WB Election 21: ধর্ম ভিত্তিক ভোটপ্রচারের অভিযোগ, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মমতার ব্যাখ্যা চাইল কমিশন
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ফাইল ছবি সংগৃহীত

WB Election 21: ধর্ম ভিত্তিক ভোটপ্রচারের অভিযোগ, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মমতার ব্যাখ্যা চাইল কমিশন

কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপি। তার প্রেক্ষিতে বুধবার মমতাকে নোটিশ পাঠিয়ে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই বক্তব্যের ব্যাখ্যা তলব করল কমিশন।

কারওই কথা শুনে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করবেন না। গত শনিবার তারকেশ্বরের একটি জনসভার এমনই আর্জি জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে এই জনসভার পর তৃণমূল সুপ্রিমো ধর্মের ভিত্তিতে ভোট প্রচার করছেন, এমন অভিযোগ করে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপি। তার প্রেক্ষিতে বুধবার মমতাকে নোটিশ পাঠিয়ে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই বক্তব্যের ব্যাখ্যা তলব করল কমিশন।

নোটিশে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, ৩ এপ্রিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে ভাষণ দিয়েছিলেন, তা খতিয়ে দেখা হয়েছে। জনপ্রতিনিধি আইনের ১২৩ (৩), ৩ (এ) ও (৪) ধারা এবং নির্বাচনী আচরণবিধি ভেঙেছেন তিনি। নোটিশ পাওয়ার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ব্যাখ্যা দিয়ে জবাব না এলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে কমিশন।

মমতা ব্যানার্জি ৩ এপ্রিলের জনসভায় কী বলেছিলেন? ওইদিন তারকেশ্বরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, সংখ্যালঘু ভাই-বোনেদের কাছে হাতজোড় করে একটা কথা বলব, ওই শয়তান ছেলেটা বিজেপির টাকা নিয়ে বেরিয়েছে। ওর কথা শুনে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করবেন না। ও সাম্প্রদায়িক কথা বলে। বিজেপির টাকা নিয়ে বেরিয়েছে যাতে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ হয়ে যায়। বিজেপি এলে দুর্ভোগ আপনাদের বেশি, এটা মাথায় রাখবেন।

মঙ্গলবার রাজ্য সফরে এসে মমতার এই বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে প্রতিক্রিয়া জানাতে ভোলেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার কোচবিহারের জনসভা থেকে মোদি পাল্টা আক্রমণ করে বলেন, 'আদরণীয় দিদি ও দিদি...আপনি বললেন, সব মুসলিম এক হয়ে যাও। ভোট ভাগতে করতে দিও না। দিদি এটা আপনাকে বলতে হচ্ছে কারণ আপনিও বুঝে গিয়েছেন মুসলিম ভোটব্যাঙ্কও আর আপনার হাতে নেই। মুসলিমরাও দূরে চলে গিয়েছে। তাই সর্বসমক্ষে আপনাকে বলতে হচ্ছে। এতে স্পষ্ট, আপনি ভোটে হারছেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in