Tokyo Olympics: সেরেনা উইলিয়ামসের পর এবার অনিশ্চিতের তালিকায় রাফায়েল নাদাল

মার্কিন কিংবদন্তী সেরেনা উইলিয়ামস, জাপানী টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা, কেই নিশেকোরি সহ টেনিস তারকাদের এক লম্বা তালিকার সাথে এ বিষয়ে গলা মেলালেন ফরাসী ওপেন চ্যাম্পিয়ন নাদাল।
Tokyo Olympics: সেরেনা উইলিয়ামসের পর এবার অনিশ্চিতের তালিকায় রাফায়েল নাদাল
সেরেনা উইলিয়ামস ও রাফায়েল নাদালফাইল ছবি, টেনিস ওয়ার্ল্ড-এর সৌজন্যে

করোনা সংক্রমণে জর্জরিত গোটা বিশ্ব। এসবের মধ্যে টোকিও অলিম্পিক আয়োজন কতটা সঙ্গত তা নিয়ে জল্পনা লেগেই রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে টোকিও অলিম্পিক থেকে সরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন স্প্যানিশ টেনিস সেনসেশন রাফায়েল নাদাল। মার্কিন কিংবদন্তী সেরেনা উইলিয়ামস, জাপানী টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা, কেই নিশেকোরি সহ টেনিস তারকাদের এক লম্বা তালিকার সাথে এ বিষয়ে গলা মেলালেন ফরাসী ওপেন চ্যাম্পিয়ন নাদাল।

টোকিও অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো গত বছর। কিন্তু তখন করোনা পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি এবং জাপান সরকারের তরফ থেকে চলতি বছরে পুনঃসূচী প্রকাশ করা হয়। ২৩ শে জুলাই থেকে ৮ ই আগস্ট পর্যন্ত আসর বসবে অলিম্পিকের। তবে সম্প্রতি টোকিও সহ অন্যান্য শহরে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় অনেক ক্রীড়াবিদ অলিম্পিকে অংশগ্রহণ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। 'স্প্যানিশ বুল' নাদাল তাদের মধ্যে অন্যতম।

২০ টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী স্প্যানিয়ার্ড ২০০৮ সালে সিঙ্গলসে সোনা জেতেন। ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিক্সে ডাবলসে মার্ক লোপেজের সঙ্গে জুটি বেঁধেও সোনা জেতেন। সেই নাদালই ঠিক করতে পারছেন না কি করবেন। ইতালিয়ান ওপেনে নামার আগে নাদাল জানান, "সাধারণ কথায় আমি অলিম্পিক মিস করতে চাইবো না। এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। সবাই জানে আমার জন্য অলিম্পিক কতোটা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে আমি কিছুই জানিনা। দেখা যাক আগামী দু মাস কেমন যায়। আমি এখনও আমার ক্রীড়াসূচী সম্পর্কে অবগত নই। সত্যি বলতে আমি আপনাদের সঠিক ভাবে বলতে পারছি না। কারণ আমি জানিনা। "

অলিম্পিকে দুইবার সিঙ্গলসে এবং ডবলসে সোনা জয়ী মার্কিন কিংবদন্তী সেরেনা উইলিয়ামস অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করবেন কিনা তা নিয়ে নিশ্চিত নন। কারণ তিনি তাঁর তিন বছরের কন্যা অলিম্পিয়াকে নিয়ে টোকিও ভ্রমণ করতে চান না বলে জানিয়েছেন। সেরেনা এবং নাদালের আগে দুই জাপানী টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা এবং নিশেকোরি অলিম্পিক আয়োজন নিয়ে দ্বিধা প্রকাশ করেছেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in