করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে চলতি বছরে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান এক থেকে দুই মাস পিছিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ক্রীড়া ক্রীড়াভবন মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রাষ্ট্রপতি ভবনের নির্দেশনা পাওয়ার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। প্রতি বছরই হকির জাদুকর ধ্যানচাঁদের জন্মদিন ২৯ শে আগস্ট রাষ্ট্রপতি ভবনে ক্রীড়া জগতের জাতীয় পুরস্কার রাজীব গান্ধী খেলরত্ন, অর্জুন পুরস্কার, দ্রোণাচার্য ও ধ্যানচাঁদ সম্মান প্রদান করা হয়। স্বয়ং রাষ্ট্রপতি এই সম্মানগুলি প্রাপকদের হাতে তুলে দেন।

তবে এই বছর সম্ভবত ২৯ শে আগস্ট আয়োজন করা যাবেনা এই অনুষ্ঠান। যদিও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি। ক্রীড়া মন্ত্রকের এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, "আমরা রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে এখনও এবিষয়ে কোনো আভাস পাইনি। আমরা ক্রীড়া পুরষ্কার সম্পর্কিত একটি আলোচনার জন্য অপেক্ষা করছি। সুতরাং, এখন এই মুহূর্তে, কী হবে তা বলা খুব কঠিন।"

ক্রীড়া মন্ত্রকের ওই কর্মকর্তা বলেন এই মহামারীর সময়ে সবার সুরক্ষাকেই অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত। তিনি জানান," বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে সারা দেশে জনসমাবেশ নিষিদ্ধ। সুতরাং রাষ্ট্রপতি ভবনে কোনও অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে না। অতীতেও এই অনুষ্ঠান দেরীতে আয়োজন করা হয়েছে। তাই যদি ২৯ শে আগস্ট এটি অনুষ্ঠিত না হয়, আমরা এক বা দুই মাস পরে এটির আয়োজন করতে পারি।"

মহামারীর কারণে গত মাসে এই সম্মানগুলির জন্য ক্রীড়া মন্ত্রকের তরফ থেকে অনলাইন আবেদনের সময় বাড়ানো হয়। সেইসঙ্গে অ্যাথলিটদের স্ব মনোনয়নের অনুমতি দেওয়া হয়। তাই বিপুল পরিমাণ আবেদন জমা পড়ে। কিন্তু ক্রীড়া মন্ত্রণালয় চূড়ান্ত বিজয়ীদের বাছাই করার জন্য এখনও কোনো কমিটি গঠন করতে পারেনি। হাতে রয়েছে মাত্র আর এক মাস।

মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, "এই বছর ক্রীড়া পুরষ্কার গুলি দিতে অবশ্যই দেরী হবে কারণ অ্যাপ্লিকেশনগুলির স্ক্রিনিং এক ক্লান্তিকর কাজ যা এখনও শুরু হয়নি।তবে পুরষ্কার অবশ্যই দেওয়া হবে। যোগ্য ক্রীড়াবিদ এবং কোচদের তাদের যথাযথ স্বীকৃতি প্রদান না করার কোনো প্রশ্নই আসে না।"

জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন