২০১৮র বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় অঘটন ঘটলো বিশ্বকাপের চতুর্থ দিনে মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে। যেখানে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে ১-০ গোলে পরাজিত করলো অনুপ্রাণিত মেক্সিকো। মেক্সিকোর আক্রমণাত্মক উইঙ্গার হিরভিং লোজানোর গোলে খাতায়কলমে অনেক বেশী শক্তিশালী জার্মানির দলকে এক জমজমাট খেলায় পরাজিত করলো মেক্সিকো।

জার্মানির দখলে বেশিক্ষণ বল থাকা সত্ত্বেও ও গোল করবার অনেক সুযোগ তৈরী করা সত্ত্বেও, গোটা খেলা জুড়ে কাউন্টার-অ্যাটাকে জার্মান রক্ষণের দুর্বলতা প্রকাশ পেল। আর প্রথমার্ধে সেরকমই এক কাউন্টার-অ্যাটাকে হাভিয়ের হার্নান্দেজের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণ করে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে নয়ারের পাশ দিয়ে জোরালো শটে গোল করে লোজানো মেক্সিকোকে জয়ী করলেন। তার পরপরই টোনি ক্রুসের ফ্রি-কিক বারে লেগে ফিরে আসে, এবং দ্বিতীয়ার্ধে জার্মানির অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড মারিও গোমেজ হেড দিয়ে গোল করবার সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন। এছাড়াও খেলার শেষ লগ্নে পরিবর্ত খেলোয়াড় জুলিয়ান ব্রান্ডটের বক্সের বাইরে থেকে জোরালো ভলি বারের ধার ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে জার্মানি পুরো মাঠ দাপিয়ে গোল করবার অনেক সুযোগ তৈরী করলেও প্রথমার্ধের মতই তাদের দ্রুত কাউন্টার-অ্যাটাকিং ফুটবল খেলে মেক্সিকো জার্মান শিবিরকে হিমশিম খাইয়ে দিয়েছিল। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, মেক্সিকোর ফাইনাল পাস্ আরো ঠিকঠাক হলে তারা প্রথমার্ধে আরো বেশী গোল করতে পারতো। দ্বিতীয়ার্ধেও সেই কাউন্টার-অ্যাটাকেই তারা আরো দুটি সুযোগ পেলেও গোলের মধ্যে শট রাখতে পারেনি।

খেলার শেষ লগ্নে জার্মানি বহু চেষ্টা করেও, এমনকী গোলরক্ষক নয়ারকে আক্রমণে পাঠিয়েও গোল করতে অসমর্থ হয়।

এই খেলার আগে সার্বিয়া আর কোস্টারিকার খেলায় সার্বিয়ান ফুলব্যাক কোলারভের জোরালো ফ্রি-কিকের করা গোলে সার্বিয়া ১-০ গোলে জয়ী হয়।

জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন