২০১৪ সালে মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে ৪০৫ জনের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে দেশদ্রোহিতার মামলা

২০১৪ সালে মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে ৪০৫ জনের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে দেশদ্রোহিতার মামলা
ছবি প্রতীকী

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ক্ষমতায় আসার পর থেকে আর্টিকাল ১৪-য় নতুন ডাটাবেস নিয়ে আসা হয়েছে। এর মধ্যে ৯৬ শতাংশ দেশদ্রোহিতার মামলা রয়েছে। রাজনৈতিক নেতা ও সরকারের উপর সমালোচনা করার জন্য ৪০৫ জনের নামে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে, ১৪৯ জন মানুষ সমালোচনা বা অপমানজনক মন্তব্য করেছেন নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে। এবং ১৪৪ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে মন্তব্য করার জন্য। আর্টিকাল ১৪-তে ২০১০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত যে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে, তার উল্লেখ করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের তরফে যদিও সমালোচনাকে দেশদ্রোহিতার মধ্যে ফেলা যায় না বলে জানানো হয়েছে বারংবার। নতুন ডাটাবেসে দেখানো হয়েছে, কৃষক আন্দোলন শুরুর পর ৬টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। হাথরাস ঘটনার সময় ২২ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে প্রতিবাদের সময় ২০১৯ সালে ২৫ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে, পুলওয়ামা হামলার ঘটনার পর ২৭টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাদের বিরুদ্ধে এই দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে, তাঁরা হলেন বিরোধী নেতা, পড়ুয়া, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ এবং লেখক রয়েছে।

বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোতে সিএএ বিরোধী প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে ২২টি দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিহার, কর্নাটক, ঝাড়খণ্ড, উত্তরপ্রদেশ এবং তামিলনাড়ুতে আর্টিকাল ১৪-র প্রভাব ৬৫ শতাংশ দেখা গিয়েছে। গত দশ বছরে এই মামলাগুলো দায়ের করা হয়েছে। বিজেপি জমানাতেই এই ৪ রাজ্যে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in